আগস্ট ৩, ২০২১

শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ চেষ্টা ও সহযোগীতার অভিযোগে মাদ্রাসার ২ শিক্ষক গ্রেপ্তার

১ min read
শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ চেষ্টা ও সহযোগীতার অভিযোগে মাদ্রাসার ২ শিক্ষক গ্রেপ্তার

শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ চেষ্টা ও সহযোগীতার অভিযোগে মাদ্রাসার ২ শিক্ষক গ্রেপ্তার

ফেনী প্রতিনিধি : ফেনীর পরশুরামে এক শিশু শিক্ষার্থীকে (৬) ধর্ষণ চেষ্টা ও সহযোগীতার অভিযোগে মাদ্রাসার তত্বাবধায়কসহ দুই শিক্ষক গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

রোববার বিকেলে ফেনীতে বিচারিক হাকিম আদালতের মাধ্যমে তাঁদের দুইজনকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। তারা হলেন- মাদ্রাসার শিক্ষক মাওলানা কাউছার হাবিব (২৫), বাড়ী- নওগাঁ ও মাদ্রাসার তত্বাবধায়ক মাওলানা অলি উল্যাহ (৩৫), বাড়ী ফিরোজপুর।

পুলিশ ও মামলার এজাহার সুত্র জানায়, ফেনীর পরশুরামের (উপজেলার চিথলিয়া ইউনিয়নের মধ্যম মালিপাথর) একটি নুরানী মাদ্রাসার শিক্ষক কাউছার হাবিব গত ১০ মার্চ সকালে ওই শিশু শিক্ষার্থীকে খুব কৌশলে তার কাছে ডেকে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে।

এ সময় মাদ্রাসার অন্য শিক্ষার্থীদের দেখে শিশুটি দৌড়ে তাদের কাছে চলে যায়। বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হলে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ ওই ধর্ষণের ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করেন। পর ওই শিশু শিক্ষার্থীর বাবা বাদী হয়ে গত শনিবার সন্ধ্যায় পরশুরাম মডেল থানায় দুইজনকে আসামী করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করেন।

পরশুরাম মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শওকত হোসেন মাদ্রাসার এক শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ চেষ্টা ও সহযোগীতার অভিযোগে মাদ্রাসার তত্বাবধায়কসহ দুই শিক্ষক গ্রেপ্তারের সত্যতা নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, মাদ্রাসার তত্বাবধায়ক ও ওই শিক্ষককে রোববার বিকেলে ফেনীর বিচারিক হাকিম আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। এছাড়া সোমবার ওই শিশু শিক্ষার্থীকে আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দি লিপিবদ্ধ করার জন্য পাঠানোর কথা রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *