শিক্ষায় বিনিয়োগ বাড়াতে হবে : পরিকল্পনামন্ত্রী


সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি : পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, ‘বর্তমান সরকার শিক্ষার উন্নয়নে ব্যাপকভাবে কাজ করছে। একটি আধুনিক, গণতান্ত্রিক, উন্নত ও বিজ্ঞানমনষ্ক জাতি গঠনে শিক্ষা নিয়ে আমাদের আরও বেশি কাজ করতে হবে। এ জন্য শিক্ষায় বিনিয়োগ বাড়াতে হবে, বেশি বেশি পরিশ্রম করতে হবে।’

আজ শনিবার সুনামগঞ্জ জেলা পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ আয়োজিত আলোচনা, শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন পরিকল্পনামন্ত্রী। সুনামগঞ্জ পৌর শহরের শহীদ আবুল হোসেন মিলনায়তনে ওই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে এবার দেশের বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে সুনামগঞ্জ জেলা থেকে ভর্তি হওয়া ১২৪জন শিক্ষার্থীকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়।

অনুষ্ঠানে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান আরও বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের উদার, আধুনিক, বিজ্ঞানমনষ্ক, খোলা মনের মানুষ হতে হবে। আমরা বাঙালি এই পরিচয় আমাদের গর্ব, এই পরিচয়ে সবাইকে দাঁড়াতে হবে।’

এম এ মান্নান আরও বলেন, ‘সুনামগঞ্জ ভাটি এলাকা। এই এলাকার সুখ-দুঃখের কথা প্রধানমন্ত্রী জানেন। সেই দায়িত্ববোধ ও মমত্ববোধ থেকে সুনামগঞ্জের উন্নয়নে তিনি আমাকে কাজ করতে বলেছেন। সুনামগঞ্জে মেডিকেল কলেজ প্রতিষ্ঠার কাজ শুরু হয়েছে। আগামী বছর থেকে ছাত্র ভর্তি হবে। বিশ্ববিদ্যালয় হবে, সেই প্রক্রিয়াও শুরু হয়েছে। দুই বছরের মধ্যে সুনামগঞ্জে রেল লাইন আসবে। অসংখ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সড়ক, সেতু হচ্ছে। আগামী পাঁচ বছরে সুনামগঞ্জের সব ক্ষেত্রে ব্যাপক পরিবর্তন আসবে।’

সংগঠনের উপদেষ্টা মুক্তিযোদ্ধা বজলুল মজিদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন সুনামগঞ্জ-৪ আসনের (সদর ও বিশ্বম্ভরপুর) সংসদ সদস্য পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ। এ ছাড়াও বক্তব্য দেন সুনামগঞ্জের সিভিল সার্জন আশুতোষ দাশ, সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শরীফুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হায়াতুন নবী, আয়োজক সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সমন্বয়কারী বাংলাদেশ প্রকৌশলী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আবু সাদাত সায়েম ও চট্টগ্রাম প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফরহাদ শাহী আফিন্দি; চট্টগ্রাম প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের সংবর্ধিত শিক্ষার্থী আশহার ইনতেযাম তাহরির। পুরো অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মাহবুবুর রহমান তাহমিদ।

সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সমন্বয়কারী বাংলাদেশ প্রকৌশলী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আবু সাদাত মো. সায়েম বলেন, ‘সুনামগঞ্জ শিক্ষা-দীক্ষায় পিছিয়ে পড়া অনঅগ্রসর একটি জনপদ, তাই ২০১৭সালে সুনামগঞ্জের যেসকল শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা করছে তাদের নিয়ে এই সংগঠনটি প্রতিষ্ঠা করা হয়। আমাদের লক্ষ্য সুনামগঞ্জের প্রত্যন্ত অঞ্চলের শিক্ষার মানোন্নয়ন করা একইসঙ্গে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য আগ্রহী করে তোলা। এজন্য আমরা এইচএসসি পরীক্ষার শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি ইচ্ছুক শিক্ষার্থীদের ফ্রি ক্লাস নেই।’

চট্টগ্রাম প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফরহাদ শাহী আফিন্দি বলেন, ‘আমরা এই সংগঠনের মাধ্যমে আমাদের সদস্যদের দিয়ে যারা বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেয় তাদের সব ধরণের সাহায্য সহযোগিতা করে থাকি।’

0 30

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আজকের সংবাদ শিরোনাম :
%d bloggers like this: