সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২১

যেসব কারণে ধর্মঘট ঢাকলো টাইগাররা

১ min read

নিউজ ডেস্ক : অনির্দিষ্টকালের জন্য সব ধরনের ক্রিকেট থেকে বিরত থাকার ঘোষণা দিয়েছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। এর মধ্যে জাতীয় দলের ক্যাম্প থেকে শুরু করে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটও রয়েছে। তবে বয়সভিত্তিক ক্রিকেটকে এর আওতার বাইরে রাখা হয়েছে।সোমবার বিকালে মিরপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে এ সিদ্ধান্ত জানান খেলোয়াড়রা। এতে ১১ দফা দাবি পেশ করেন সাকিব-তামিমরা।দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত এ ধর্মঘট চলবে বলে জানান তারা।

ক্রিকেটারদের দাবিগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো দেশের ক্রিকেটের অবকাঠামোগত উন্নয়ন,খেলোয়াড়দের বেতন-ভাতা বৃদ্ধি, জাতীয় ও প্রিমিয়ার লিগে (এনসিএল, বিপিএল, ডিপিএল) সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধি, পাতানো ম্যাচ বন্ধে পরিকল্পনা প্রণয়ন, এনসিএলে ওয়ানডে ভার্সন নিয়ে আসা, ঘরোয়া মৌসুমের একটি সুষ্ঠু ক্যালেন্ডার তৈরি করা ইত্যাদি।

এসময় মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, নাঈম ইসলাম, এনামুল হক বিজয়, নুরুল হাসান সোহান, রুবেল হোসেন, নাজমুল ইসলাম অপু, আবু হায়দার রনি,সাব্বির রহমান, লিটন দাসসহ জাতীয় দলের আরো অনেক ক্রিকেটার উপস্থিত ছিলেন। হাজির ছিলেন ঘরোয়া ক্রিকেটাররাও। তবে মাশরাফি বিন মুর্তজা এ প্রতিবাদে যোগ দেননি।

তাদের মূখ্য দাবি,আন্তর্জাতিক ম্যাচসহ ঘরোয়া টুর্নামেন্টের ম্যাচগুলোতে ম্যাচ ফি বাড়াতে হবে। বিপিএল, ডিপিএলে আগের মতোই পারিশ্রমিক দিতে হবে। এনসিএলের ম্যাচ ফি ১ লাখ করতে হবে।

স্বভাবতই ক্ষুব্ধ বাংলাদেশের শীর্ষ ক্রিকেটাররা। এসবের প্রতিবাদে দুপুরে বোর্ড একাডেমি ভবনের সামনে এসে জমায়েত হন তারা। শুরুতে মিরপুর স্টেডিয়ামে এসে বিসিবির কাছে নিজেদের দাবি-দাওয়ার কথা জানান খেলোয়াড়রা। পরে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হন তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *