আগস্ট ২, ২০২১

ভেঙে পড়ল পিলার-গার্ডার

১ min read

বিশেষ প্রতিনিধি : সাড়ে সাত ঘন্টার ব্যবধানে ‘গ্রেটার ঢাকা সাসটেইনেবল আরবান ট্রান্সপোর্ট’ প্রকল্পের বাস র‌্যাপিড ট্রানজিটের (বিআরটি) নির্মাণাধীন পিলার ধস ও গার্ডার ভেঙে পড়ার ঘটনা ঘটেছে। গতকাল রোববার প্রকল্পের বিমানবন্দর ও আব্দুল্লাহপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনে আগামী ১৭-২৬ মার্চ পর্যন্ত রাষ্ট্রীয় কর্মসূচির প্রাক্কালে গত শনিবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে রাজধানীর আব্দুল্লাহপুরের পলওয়েল কারনেশনের সামনে ‘গ্রেটার ঢাকা সাসটেইনেবল আরবান ট্রান্সপোর্ট’ প্রকল্পের ম্যাস র‌্যাপিড ট্রানজিটের (বিআরটি) নির্মাণাধীন একটি পিলারের একপাশের অংশ ধসে পড়েছে। তবে এতে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

জানা যায়, গাজীপুরের সঙ্গে ঢাকার যোগাযোগ সহজ করতে নির্মাণাধীন র‌্যাপিড ট্রানজিটের ২২ নম্বর পিলারের উপর নির্মাণ করা হয়েছিল পিআর টি শেফ। তার উপর স্প্যান বসানোর কথা ছিল। তবে ঢালাই শেষ হলে রাতেই সেটি ধসে পড়ে। ধসে পড়ে কংক্রিট ও রডগুলো বের হয়ে পড়ে আছে। উপরের ভারী রডগুলোও বাঁকা হয়ে থাকতে দেখা যায়।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত শ্রমিক সুমন বলেন, রাতে ডিউটি শেষে বাসায় চলে যাই। সকালে এসে দেখি এর একপাশের অংশ ধসে পড়ে গেছে। তবে কীভাবে পড়েছে তা বলতে পারি না।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ম্যাস র‌্যাপিড ট্রানজিট (বিআরটি) কোম্পানি লিমিটেডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর (এমডি) শফিকুল ইসলাম বলেন, গাজীপুর-বিমানবন্দর ম্যাস র‌্যাপিড ট্রানজিট নির্মাণকাজের আব্দুল্লাহপুর অংশটি বাংলাদেশে সেতু কর্তৃপক্ষের আওতাভুক্ত। সেখানে প্রজেক্টের ২২ নম্বর পিলারের উপর পিআর টি শেপ অংশের একপাশে ঢালাই শেষ করা হয়েছিল। অবশ্য তা গত রাত ২টার দিকে ধসে পড়ে। তিনি বলেন, এ বিষয়ে আমরা মন্ত্রণালয় থেকে একটি কমিটি গঠন করবো। ওই কমিটি শুধু সিকিউরিটি সংক্রান্ত বিষয়টি তদন্ত করে দেখবে।

এদিকে গতকাল রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে একই প্রকল্পের সড়ক ও জনপথ বিভাগের তত্ত¡াবধায়নে থাকা রাজধানীর বিমানবন্দর এলাকায় ম্যাস র‌্যাপিড ট্রানজিট (বিআরটি) স্থাপনার কাজের সময় লঞ্চিং গার্ডার ভেঙে পড়ে তিন চীনা শ্রমিকসহ ছয়জন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে আহত পাঁচজন আশঙ্ককামুক্ত হলেও এক চীনা নাগরিকের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা যায়। আহতরা সবাই এভার কেয়ার হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

এ প্রসঙ্গে প্রকল্পের পরিচালক এএসএম ইলিয়াস শাহ্ বলেন, যন্ত্রের ত্রুটির কারণেই এমন দুর্ঘটনা। এটা মূল পিলারের সঙ্গে সম্পৃক্ত নয়। তবে এমন অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা কেন ঘটলো পরবর্তীসময়ে যাতে না ঘটে এজন্য সংশ্লিষ্টদের নিয়ে বসবো। আপাতত ইমার্জেন্সিটা কেটে যাক।

‘গ্রেটার ঢাকা সাসটেইনেবল আরবান ট্রান্সপোর্ট’ শীর্ষক এ প্রকল্পের বিস্তৃত করা হচ্ছে মহাখালী পর্যন্ত। একইসঙ্গে এর আওতায় বিমানবন্দরের সামনে নির্মাণ করা হচ্ছে আধুনিক আন্ডারপাস। বিআরটির আওতায় ছয়টি ফ্লাইওভার ও উড়াল সড়কের কাজ চলমান।

যানজট নিরসনে রাজধানীর সড়ক পরিবহন সেক্টরে স্ট্র্যাটেজিক ট্রান্সপোর্ট প্ল্যান (এসটিপি) সংশোধন করা হয়েছে। প্রথমে গাজীপুর থেকে বিমানবন্দর পর্যন্ত এই রুটের দৈর্ঘ্য ছিল ২০ দশমিক ২০ কিলোমিটার। প্রকল্পের মোট ব্যয় ৪ হাজার ২৬৪ কোটি ৮২ লাখ ১৪ টাকা। সব মিলিয়ে প্রকল্পের অগ্রগতি মাত্র ৫১ শতাংশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *