সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২১

ভারতের সঙ্গে যে চুক্তি হয়েছে তাতে বাংলাদেশের স্বার্থবিরোধী কিছু নেই, বললেন জিএম কাদের

১ min read

নিউজ ডেস্ক: জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি। তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর সম্প্রতি ভারত সফর ও সেখানে সম্পাদিত দ্বিপক্ষীয় চুক্তি সম্পর্কে কিছু বিরূপ আলোচনা চোখে পড়েছে। এই বিষয়ে যৌথ বিবৃতি ও উল্লিখিত চুক্তিগুলোর তালিকা দেখেছি। সেখানে দেশের স্বার্থবিরোধী কিছু চোখে পড়েনি।’

রোববার (২৭ অক্টোবর) জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের বনানী অফিসে পার্টির সাংগঠনিক টিমের যৌথ সভায় সভাপতির বক্তব্যে গোলাম মোহাম্মদ কাদের এ কথা বলেন।

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান আরও বলেন, ‘বুয়েটের ছাত্র আবরার হত্যাকাণ্ডের আমরা তীব্র নিন্দা জানিয়েছি। হত্যাকারীদের গ্রেফতার করা হয়েছে। এই হত্যার বিচার যেন সঠিকভাবে সম্পন্ন হয় ও দোষী ব্যক্তিরা যেন দৃষ্টান্তমূলক শান্তি পায়— আমরা সেটাই চাই। আমরা প্রত্যাশা করি, এ ধরনের ঘটনার যেন পুনরাবৃত্তি না হয়।’

কাদের বলেন, ‘দেশে এখন দুর্নীতিবিরোধী শুদ্ধি অভিযান চলছে। আমি প্রধানমন্ত্রীর এই সাহসী পদক্ষেপকে অভিনন্দন জানাই। তিনি নিজ দলের মানুষকেও ছাড় দেন নাই। আমরা আশা করি, এই অভিযান অব্যাহত থাকবে। আওয়ামী লীগ এ বিষয়ে তাদের নির্বাচনি ইশতেহারে বর্ণিত অঙ্গীকার বাস্তবায়ন করবে।’

তিনি বলেন, ‘দেশে রাজনৈতিক শূন্যতা আছে। সামাজিক অস্থিরতা বিরাজ করছে। রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যেও অস্থিরতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এ কারণে আমরা সুশৃঙ্খলভাবে রাজনৈতিক কর্মসূচি নিয়ে এগিয়ে যেতে চাই। যেন শক্তিশালী সংগঠনের মাধ্যমে জন প্রত্যাশিত রাজনীতি দিয়ে আমরা অধিকতর জনসমর্থন ও আস্থা লাভ করতে পারি।’

এসময় জাতীয় পার্টির সাংগঠনিক টিমের যৌথসভায় আরও বক্তব্য রাখেন— চট্টগ্রাম বিভাগের আহ্বায়ক কাজী ফিরোজ রশীদ, সমন্বয় কমিটির আহ্বায়ক জিয়া উদ্দিন আহমেদ বাবলু, সমন্বয় কমিটির সদস্য সচিব মো. আবুল কাশেম, ঢাকা বিভাগের আহ্বায়ক সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, বরিশাল বিভাগের আহ্বায়ক গোলাম কিবরিয়া টিপু, রাজশাহী বিভাগের আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট শেখ মুহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম, রংপুর বিভাগের আহ্বায়ক মুজিবুল হক চুন্নু, খুলনা বিভাগের আহ্বায়ক সাহিদুর রহমান টেপা, সদস্য সচিব সুনীল শুভ রায়, ময়মনসিংহ বিভাগের যুগ্ম আহ্বায়ক ফখরুল ইমাম, সিলেট বিভাগের আহ্বায়ক লে. জে. অব মাসুদ উদ্দিন চৌধুরী, আন্তর্জাতিক বিষয়ক কমিটির সদস্য সচিব এটিইউ তাজ রহমান। সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন— প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যাপিকা মাসুদা এম. রশীদ চৌধুরী, নূর-ই-হাসনা লিলি চৌধুরী, এস.এম. ফয়সল চিশতী, মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরী, আতিকুর রহমান আতিক, ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী, অ্যাডভোকেট রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *