সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২১

ভবিষ্যতের জন্য স্বপ্ন দেখাচ্ছে ক্রিকেট

১ min read

নিউজ ডেস্ক: একটি সম্ভাবনার বাংলাদেশ দেখা যাচ্ছে। বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল নিয়ে দেশের মানুষের প্রত্যাশা শত গুণ বেড়ে গেছে। একের পর এক বড় দলকে হারিয়ে তারা তাদের সামর্থ্যের প্রমাণ দিয়ে চলেছে। বর্তমানে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল এখন আছে নিউজিল্যান্ড সফরে।

যুবারা দুই ম্যাচ বাকি থাকতে এরই মধ্যে নিশ্চিত করে ফেলেছে ওয়ানডে সিরিজ। দুদিন হলো বিসিবির আরেকটি বয়সভিত্তিক দল শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের একাডেমি মাঠে শুরু করেছে অনুশীলন। এটিও বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। বিসিবি বিকল্প অনূর্ধ্ব-১৯ দল তৈরি করছে। এই দলের বেশির ভাগ খেলোয়াড় কদিন পর লঙ্কান যুবাদের বিপক্ষে দুটি চার দিনের ম্যাচ খেলবে।

একই সময়ে দুটি দল তৈরির ব্যাখ্যা দিলেন বিসিবির গেম ডেভেলপমেন্ট বিভাগের ব্যবস্থাপক এইএম কায়সার, ‘শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুটি চার দিনের ম্যাচ সামনে রেখে ওরা তৈরি হচ্ছে। আর নিউজিল্যান্ড সফরে থাকা দলটি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলবে ওয়ানডে। নিউজিল্যান্ডে যারা ছন্দ হারিয়ে ফেলেছে বিশেষ করে ব্যাটসম্যানরা, তাদের ফর্মে ফেরার সুযোগ দেওয়া হবে চার দিনের ম্যাচে। আমাদের হাতে এই মুহূর্তে ভালো মানের অনেক খেলোয়াড় আছে। এ কারণে দুটি দল করা হয়েছ।’

কোচ সোহেল ইসলামের অধীনে অনুশীলন শুরু করা এই দলটি বরিশালে আগামী ২৬ অক্টোবর শ্রীলঙ্কা অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বিপক্ষে প্রথম চার দিনের ম্যাচ খেলবে। পরের চার দিনের ম্যাচটি হবে খুলনায়, ২ নভেম্বর। তার আগে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে যুবারা। কোচ সোহেল অবশ্য এটিকে বিকল্প দল বলতে চান না, ‘এটাকে বিকল্প দল বলব না। জাতীয় দলের বিকল্প হিসেবে যেমন “এ” দল থাকে, অনেকটা ওরকম। এবারই প্রথমবার এই দলটি করা হয়েছে। অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বেশি ক্রিকেটার যেন খেলার সুযোগ পায় সে কারণেই করা। লক্ষ্য থাকবে এখান থেকে যেকোনো খেলোয়াড় যেন মূল দলে যেতে পারে। প্রতিযোগিতা বাড়াতেই আসলে দলটি করা। এদের শুধু অনুশীলন নয়, ম্যাচও থাকবে। সামনে শ্রীলঙ্কার অনূর্ধ্ব-১৯ স্কোয়াডের সঙ্গে তারা খেলবে।এ লক্ষ্যেই আমরা দলটি গোছানোর চেষ্টা করছি।’

নিউজিল্যান্ড সফররত দলে পেসারদের আলাদা গুরুত্ব থাকলেও দেশে থাকা অনূর্ধ্ব-১৯ দলে স্পিনারদের গুরুত্ব বেশি থাকবে। দুই দলের দুই রকম বোলিং আক্রমণের ব্যাখ্যায় সোহেল বলছেন, ‘এটা কন্ডিশনের ওপরে নির্ভর করে। যেখানে উইকেট স্পিন-সহায়ক থাকে, সেখানে স্পিনারদের গুরুত্ব দেওয়ার চিন্তা থাকে। নিউজিল্যান্ডে পেস বোলার বেশি লাগে। স্কোয়াড আসলে পরিকল্পনার ওপর নির্ভর করে।’

নিউজিল্যান্ডে থাকা বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের অধিনায়ক আকবর আলী। কিন্তু দেশে থাকা যুব দলকে কে নেতৃত্ব দেবেন, সেটি এখনো ঠিক হয়নি। বিসিবির গেম ডেভেলপমেন্ট বিভাগের ব্যবস্থাপক জানালেন, সিরিজের আগে ঠিক হবে অধিনায়ক। এই দলের ব্যাটিং পরামর্শক হিসেবে কাজ করবেন সাবেক ভারতীয় ব্যাটসম্যান ওয়াসিম জাফর।

অনেক দিন ধরে শোনা যাচ্ছে সংস্করণ ভেদে আলাদা আলাদা জাতীয় দল করতে চায় বিসিবি। হাতে পর্যাপ্ত বিকল্প খেলোয়াড় না থাকায় তিন সংস্করণে প্রায় একই মুখ দেখা যায় বাংলাদেশ দলে। ছন্দ হারিয়ে ফেলা খেলোয়াড় তাই খেলে যান ম্যাচের পর ম্যাচ। জাতীয় দলে কবে হবে সেটি এখনই বলা কঠিন হলেও অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেটে বিসিবি অন্তত পেরেছে একই সঙ্গে আলাদা দুটি দল করতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *