সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২১

বিএনপির দুর্নীতিবাজ নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধেও অভিযান চলানো হবে: ওবায়দুল কাদের

১ min read

নিউজ ডেস্ক : আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘শুদ্ধি অভিযান শুধু আওয়ামী লীগের লোকের বিরুদ্ধে নয়, বিএনপির দুর্নীতিবাজ নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধেও অভিযান চলানো হবে। বিএনপির নেতাকর্মীরা কে কী করছেন, কোথায় বসে কী অপকর্ম করছেন- সব খোঁজখবর নেয়া হচ্ছে। সময়মতো টের পাবেন।’
দুপুরে নগরীর ‘দি কিং অব চিটাগাং’-এ চট্টগ্রাম বিভাগের ৬ জেলা আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘অপকর্মকারীরা সাবধান হয়ে যান, চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা সাবধান হয়ে যান- প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজের ঘরটা শেষ করে পরেরটা ধরবেন। নেটের জালে সবার অপরাধ ধরা পড়বে। শেখ হাসিনার অ্যাকশন ডাইরেক্ট অ্যাকশন।’

ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, ‘শেখ হাসিনা শুধু রাজনীতিক নন, তিনি একজন রাষ্ট্রনায়ক। রাজনীতিকরা চিন্তা করেন পরবর্তী নির্বাচন নিয়ে; কিন্তু রাষ্ট্রনায়কের চিন্তা পরবর্তী জেনারেশন নিয়ে। ভিশন ২০২১, ২০৪১ ও একশ’ বছরের মহাপরিকল্পনা নিয়ে শেখ হাসিনা এগিয়ে যাচ্ছেন। বাংলাদেশ জিডিপিতে এশিয়ায় সবার শীর্ষে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ আরও এগিয়ে যাবে।’

নেতাকর্মীর উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘ক্ষমতা চিরস্থায়ী নয়। ক্ষমতার দাপট দেখাবেন না। আওয়ামী লীগ মানুষের দল। মানুষের ভালোবাসা হারিয়ে ফেললে বেঁচে থাকা দায়। তাই সময় থাকতে ভালো হয়ে যান। দলে বসন্তের কোকিলের আগমন ঘটাবেন না। তারা কিন্তু মৌসুম এলে আসবে, আবার মৌসুম চলে গেলে চলে যাবে।’

প্রকল্পগুলো হল- প্রায় ৪৫৮ কোটি ব্যয়ে চট্টগ্রাম-রাঙ্গামাটি জাতীয় মহাসড়কের (এন-১০৬) হাটহাজারী থেকে রাউজান পর্যন্ত ৪ লেনের প্রকল্প, ১ কোটি টাকা ব্যয়ে ফটিকছড়ি সড়ক উপবিভাগ অফিস কাম পরিদর্শন বাংলো নির্মাণ প্রকল্প, শাহ আমানত সেতুর ইলেকট্রনিক্স টোল সিস্টেম ও ওজন স্কেলের কার্যক্রম, ৫ কোটি টাকা ব্যয়ে চট্টগ্রাম-কাপ্তাই আঞ্চলিক মহাসড়কের ৪৪তম কিলোমিটারে ৩১ দশমিক ৮২ মিটার দীর্ঘ পিসি গার্ডার সেতু প্রকল্প, সীতাকুণ্ডের বড় দারোগারহাট ওজন স্কেলের নবনির্মিত ৫ম লেনের কার্যক্রম, প্রায় ৩০ কোটি টাকা ব্যয়ে মইজ্জারটেক-বিএফডিসি-মৎস্যবন্দর ফেরিঘাট সড়কে ২টি পিসি গার্ডার সেতুর পুনর্নির্মাণসহ এক থেকে ৫ কিলোমিটার পর্যন্ত সেতু মজবুতকরণ, সম্প্রসারণ এবং ৩০ কোটি টাকা ব্যয়ে কাশিমপুর-রেলওয়ে স্টেশন-বাগিচারহাট সড়ক উন্নয়ন।

তিনি বলেন, ‘আমরা ৫২ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে ঢাকায় ৬টি মেট্রো লাইন করতে যাচ্ছি। ৪২ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে মেট্রো ৫ এর কাজও একনেকে অনুমোদন হয়েছে। ফিজিক্যাল কনস্ট্রাকশনের কাজ শেষ হয়েছে। ২০৩০ সাল নাগাদ ৬টি মেট্রোলাইন ঢাকাকে সব দিক দিয়ে কানেক্ট করবে।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কর্ণফুলী টানেল প্রকল্পটি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অগ্রাধিকারভিত্তিক মেগা প্রকল্প। ইতিমধ্যে টানেলের ৪৮ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে। এর মাধ্যমে বাংলাদেশে প্রথম নদীর তলদেশে টানেল নির্মাণ হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী নিজেই এটির উদ্বোধন করে গেছেন। তার সঙ্গে আমিও ছিলাম। এ টানেলের কাজ শেষ হলে পাল্টে যাবে চট্টগ্রাম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *