সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২১

বাকুতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা অলির দ্বিপাক্ষিক বৈঠক

১ min read

নিউজ ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ ও নেপালের মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্য জোরদারের অংশ হিসেবে প্রিফারেন্সিয়াল ট্রেড এগ্রিমেন্ট দ্রুত সই করার ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন।
তিনি বলেন, পিটিএ দ্রুত বাস্তবায়ন করা গেলে দুই দেশ ব্যবসা-বাণিজ্যের ক্ষেত্রে ব্যাপক সুবিধা লাভ করবে। ১৮তম ন্যাম সম্মেলনের পাশাপাশি শনিবার নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শার্মা ওলির সঙ্গে বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ কথা বলেন।বৈঠকের পর পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন। প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

দুই প্রধানমন্ত্রী যোগাযোগ, বন্দর সুবিধা এবং ব্যবসা-বাণিজ্য জোরদার করার বিষয়ে আলোচনা করেন।

বাংলাদেশ, ভুটান, ভারত এবং নেপাল উদ্যোগ সম্পর্কে পররাষ্ট্র সচিব বলেন, এটির বাস্তবায়নে ভুটানের একটি সমস্যা রয়েছে। তবে, নেপাল এটির বাস্তবায়নে সম্মত হয়েছে। এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা ভারত ও নেপালের কাছে বিষয়টি উত্থাপন করেছি। এর মাধ্যমে বিবিআইএনকে আমরা কার্যকর করতে পারি।

এদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শনিবার সকালে আজাইরবাইজানের বাকু কংগ্রেস সেন্টারের প্ল্যানারি হলে ১৮তম ন্যাম সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনে সাধারণ অধিবেশনে যোগ দেন। প্রধানমন্ত্রী এদিন বিকালে সম্মেলনের সমাপনী অধিবেশনেও যোগ দেন। সমাপনী অধিবেশনে বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধান এবং অংশগ্রহণকারী দেশের প্রতিনিধিরা বাকু ঘোষণা গ্রহণ করেন।

আজারবাইজানের শহীদদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শনিবার আজারবাইজানের শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। প্রধানমন্ত্রী বিকালে শহীদদের স্মৃতির উদ্দেশ্যে নির্মিত স্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এ সময় প্রধানমন্ত্রী কিছুক্ষণ নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন।

প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ ও পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হকসহ প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গীরা এ সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *