সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২১

বাইকার তরুণী নিজেকে পরিচয় দেন সাংবাদিক বলে কে এই তরুণী?

নিউজ ডেস্ক : সুদর্শনী এই তরুণী যেদিকে যান সেদিকেই মাত করেন। সহজেই নজর কাড়েন তরুণদের। তবে তার সৌন্দর্যের মায়াজালে যে একবার আটকে গেছে তার আর রক্ষা নেই। ছলে বলে তাকে ফতুর করে ছাড়েন।বাইকার এই তরুণী কখনো নিজেকে পরিচয় দেন সাংবাদিকের। কখনো পুলিশ পরিচয় দিয়ে ফাঁদে ফেলেন মানুষকে। স্বার্থসিদ্ধি হলেই কেটে পড়েন। প্রতারণা ও মাদক বিক্রির অভিযোগে চার সহযোগীসহ অবশেষে ধরা পড়েছেন এই তরুণী। গ্রেফতারের সময় তার সহযোগীদের কাছ থেকে দুটি ওয়াকিটকি সেট উদ্ধার করা হয়েছে।তার নাম রেহেনা ওরফে লিপি (২৫)। তিনি চৌগাছা উপজেলার মাশিলা নারায়ণপুর গ্রামের মিঠুর স্ত্রী। মাশিলা গ্রামের হানিফের মেয়ে। যশোর শহরের রেলগেট এলাকায় তার বসবাস। বুধবার বিকেলে যশোর জিলা স্কুলের সামনে থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে কোতোয়ালি থানা পুলিশ। গ্রেফতারের সময় নিজেকে সাপ্তাহিক স্মৃতি পত্রিকার সাংবাদিক হিসেবে দাবি করেন লিপি। পুলিশ জানিয়েছে লিপি সাংবাদিক পরিচয়ে মোটরসাইকেল নিয়ে এলাকায় দাপিয়ে বেড়াতেন। তিনি ইয়াবা বিক্রির সঙ্গে জড়িত। এছাড়া রূপের মোহনীয়তায় বহু যুবককে ফাঁদে ফেলেছেন লিপি। তাকে যারা চিনেন তাদের পরিচিতি ‘কলগার্ল’।কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) সমীর কুমার সরকার জানান, পুলিশ জানতে পারে এক নারী মোটরসাইকেল চালিয়ে শহরময় ঘুরে বেড়ায়। তার ইয়ামাহা এফজেডএস ব্র্যান্ডের মোটরসাইকেলের সামনে প্রেস লেখা আছে।তিনি নিজেকে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে থাকেন। এই পরিচয় ব্যবহার করে শহরের বিভিন্ন এলাকায় ইয়াবা বিক্রি করে থাকেন। কক্সবাজার থেকে ইয়াবার চালান নিয়ে এসে মোটরসাইকেল চালিয়ে যশোরে বিক্রি করেন। আবার কলগার্ল হিসেবে তার পরিচিতি রয়েছে।বুধবার বিকালে যশোর জিলা স্কুলের সামনে তার সঙ্গীরা কোনো একটি অপরাধ করার জন্য দাঁড়িয়ে আছে, এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ সেখানে অভিযান চালায়।রেহেনাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তার কাছ থেকে যশোর থেকে প্রকাশিক ‘সাপ্তাহিক স্মৃতি’ নামে একটি পত্রিকার পরিচয়পত্র পাওয়া গেছে। তিনি ওই ওয়াকিটকি সেট একটি অনলাইন থেকে কিনেছে বলে প্রাথমিকভাবে পুলিশকে জানিয়েছে।বছরখানেক আগে ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলার একজন ভাইস চেয়ারম্যানের সঙ্গে লিপিকে আটক করেছিল পুলিশ। কয়েক মাস আগেও যশোর শহরের দড়াটানা থেকে পুলিশ তাকে আটক করেছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *