জুলাই ২৮, ২০২১

ফেসবুক ক্ষমতা ও অর্থের দাস,অভিযোগ সাবেক নির্বাহীস্টিফেন শিহিলার

ফেসবুক ক্ষমতা ও অর্থের দাস অভিযোগ সাবেক নির্বাহীর

ফেসবুক ক্ষমতা ও অর্থের দাস অভিযোগ সাবেক নির্বাহীর

নিউজ ডেস্ক: অস্ট্রেলিয়ায় নতুন গণমাধ্যম আইন পাসের পর ফেসবুকে সংবাদ প্রচার বন্ধ করে দিয়েছে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটি। এ ঘটনায় ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জুকারবার্গের নিন্দা করেছেন স্টিফেন শিহিলার। তিনি অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডে ফেসবুকের সাবেক প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা। তিনি বলেন, ফেসবুক ও মার্ক জুকারবার্গ ক্ষমতা ও অর্থের দাস। এটা ভালো ব্যাপার নয়।

ফেসবুকের এ সিদ্ধান্ত মাধ্যমটিকে গুজবের কারখানায় পরিণত করবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন ২০১৭ সালে ফেসবুক থেকে পদত্যাগ করা স্টিফেন শিহিলার। তিনি অস্ট্রেলিয়ানদের ফেসবুক অ্যাপস ডিলেট করার পরামর্শ দিয়েছেন। স্টিফেন শিহিলার বলেন, এটি ফেসবুকের জন্য অস্ট্রেলিয়ার পক্ষ থেকে একটি শক্তিশালী বার্তা হবে।

ফেসবুক বিশ্বের যেকোনো সরকারের থেকেও শক্তিশালী বলে মন্তব্য করেন তিনি। স্টিফেন শিহিলার বলেন, এমন কোনো ব্যালটবক্স নেই যাতে মার্ক জুকারবার্গের বিরুদ্ধে ভোট দেওয়া যায়। এমনকী যারা ফেসবুকের শেয়ারহোল্ডার, তাদের ভোটেরও দাম নেই।

অস্ট্রেলিয়ানদের উদ্দেশ্যে স্টিফেন শিহিলার বলেছেন, ফেসবুকে অস্ট্রেলিয়ার গণমাধ্যমের খবর প্রকাশ বন্ধ করা উচিৎ হয়নি। আমি ফেসবুকের একজন কর্মকর্তা ছিলাম বলে গর্বিত। তবে বছর জুড়ে আমি হতাশ হয়েছি।

অস্ট্রেলিয়ার নতুন গণমাধ্যম আইনের নাম ‘নিউজ মিডিয়া অ্যান্ড ডিজিটাল প্ল্যাটফরমস মেন্ডেটরি বারগেইনিং কোড’। এ আইনে অস্ট্রেলিয়ার সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে ফেসবুক ও গুগলের মতো টেক জায়ান্টদের বিজ্ঞাপন ও আর্থিক চুক্তির বিষয় স্থান পেয়েছে। ফেসবুক ও গুগলের বিজ্ঞাপন থেকে মাধ্যমগুলো সঠিকভাবে অর্থ পায় না। এছাড়া গুগলের মতো প্রতিষ্ঠান সংবাদমাধ্যমের কন্টেন্ট ব্যবহার করে আয় করছে। কিন্তু সংবাদমাধ্যম তাদের থেকে কোনো আর্থিক সুবিধা পাচ্ছে না। এসব বিষয় এবং অনলাইন বিজ্ঞাপনের অর্থের বৈষম্য দূর করতেই এই আইন।

নতুন আইন পাসের পর বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) থেকে কোনও সংবাদমাধ্যমের ফেসবুক পেজে যেতে পারছেন না ব্যবহারকারীরা। অস্ট্রেলিয়ার বাইরের দেশগুলোর ব্যবহারকারীরাও দেশটির সংবাদমাধ্যমগুলোর ফেসবুক পেজ খুঁজে পাচ্ছেন না।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *