আগস্ট ৩, ২০২১

ফেনীতে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগে স্বামীকে কারাগারে প্রেরণ

ফেনীতে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগে স্বামীকে কারাগারে প্রেরণ

ফেনীতে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগে স্বামীকে কারাগারে প্রেরণ

ফেনী প্রতিনিধি : ফেনীতে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগে তার স্বামীকে গ্রেপ্তারের পর আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। তার নাম মো. ইউছুফ (২৭)। তিনি ফেনী সদর উপজেলার বালিগাঁও ইউনিয়নের আফতাব বিবি এলাকার ফকির আহমেদের ছেলে এবং পেশায় একজন রিক্সা চালক।

গত শনিবার বিকেলে ফেনী পৌরসভার ১৬ নং ওয়ার্ডের শাহীন একাডেমি রোডের বায়তুল আমান জামে মসজিদের পাশে আবু আহম্মদের কলোনি থেকে তানিয়া বেগম নামে ওই গৃহবধুর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় ওই গৃহবধুর বাবা নুর মিয়া বাদী হয়ে স্বামী মো. ইউসুফ ও তার বোন মুন্নী আক্তারকে আসামী করে ফেনী মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পুলিশ মো. ইউছুফকে গ্রেপ্তার করেন। মুন্নী আক্তার পলাতক রয়েছেন।

গৃহবধুর স্বামী ইউছুফের দাবী তার স্ত্রী তানিয়া পারিবারিক কলহের জের ধরে আত্মহত্যা করেছে।

পুলিশ ও পারিবারিক সুত্র জানায়, প্রায় চার বছর আগে ফেনী সদর উপজেলার বালিগাঁও ইউনিয়নের আফতাব বিবি এলাকার ফকির আহমেদ ছেলে মো. ইউসুফের সাথে পরশুরামের মালিপাথর এলাকার নুর মিয়ার মেয়ে তানিয়ার বিয়ে হয়। ইউসুফ একজন রিকশা চালক। তাদের দুটি কন্যা সন্তান রয়েছে।

নিহতের মা শিরিন আক্তার অভিযোগ করেন, ইউসুফ তার মেয়েকে গলা টিপে হত্যার পর আত্মহত্যা বলে মিথ্যা কথা বলেন। বিয়ের পর থেকে স্বামী ইউসুফ প্রায় সময় তার স্ত্রী তানিয়াকে মারধর করতো।

একবার স্ত্রীকে মেরে পা ভেঙে দিয়েছিল। কিছুদিন আগেও যৌতুকের জন্য তাকে (তানিয়া) মারধর করেছে। তখন তাকে কিছু টাকা দেওয়া হয়েছিল।

আজ রোববার ফেনী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে ওই গৃহবধুর লাশের ময়না তদন্ত শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

ফেনী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলমগীর হোসেন জানান, গৃহবধু হত্যার অভিযোগে তার বাবা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। স্বামী ইউছুফকে গ্রেপ্তার ও আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *