আগস্ট ৩, ২০২১

পশুর নদী ও সুন্দরবন বাঁচাও দাবিতে মোংলায় মানববন্ধন

১ min read
পশুর নদী ও সুন্দরবন বাঁচাও দাবিতে মোংলায় মানববন্ধন

পশুর নদী ও সুন্দরবন বাঁচাও দাবিতে মোংলায় মানববন্ধন

মোংলা (বাগেরহাট) সংবাদদাতা : ‘পশুর নদী বাঁচাও, সুন্দরবন বাঁচাও’ দাবীতে আর্ন্তজাতিক নদীকৃত্য দিবসে মোংলায় মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। মানববন্ধন ও সমাবেশে বক্তারা সুন্দরবনের প্রাণ পশুর নদীর দূষণ ও দখল রোধের দাবী জানান।

সুন্দরবনের বাপারজোন পশুর নদীর পাড়ে অপরিকল্পিত শিল্পায়ন গড়ে ওঠার প্রতিবাদ জানান তারা। সুন্দরবন সংলগ্ন এলাকায় সরকারী প্রবাহমান নদী-খালে বাঁধ দিয়ে চিংড়ি চাষ ও দখল করে অবকাঠামো নির্মাণ করার ফলে প্রাণ-প্রকৃতিতে বিরুপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্ঠি হয়েছে তাই বক্তারা অবিলম্বে নদী-খালের অবৈধ বাঁধ অপসারণ করার জন্য সরকারে প্রতি আহ্বান জানান।

রবিবার সকালে মোংলার পশুর নদীর চরকানা এলাকায় ডুবন্ত কয়লাবাহী জাহাজের সন্নীকটে এ মানববন্ধন ও সমাবেশের আয়োজন করে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা), ওয়াটারকিপার্স বাংলাদেশ এবং পশুর রিভার ওয়াটারকিপার।

অনুষ্ঠানের প্রধান বক্তা বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) মোংলার আহ্বায়ক পশুর রিভার ওয়াটারকিপার মোঃ নূর আলম শেখ বলেন, প্রতিনিয়ত পশুর নদীতে তেল-কয়লা-সার ভর্তি কার্গো জাহাজ ডুবির ঘটনা ঘটলেও দ্রুত উদ্ধার তৎপরতা লক্ষ্য করা যায় না। ব্যাপক হারে প্লাস্টিক দূষণ দ্বারাও বিপর্যস্ত পশুর নদীর প্রাণ বৈচিত্র।

অন্যদিকে ফারাক্কা বাঁধের বিরুপ প্রতিক্রিয়ায় পর্যাপ্ত মিষ্টি পানির প্রবাহ না থাকায় পশুর নদী এবং সুন্দরবন তার যৌবন হারাচ্ছে।

পানির কোন বর্ডার নেই, এই কথা মনে রেখেই ধরিত্রী বাঁচাতে জাতীয়-আন্তর্জাতিক সংস্থাকে কাজ করার আহবাণ জানান তিনি। মানববন্ধন-সমাবেশে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার বিপুল সংখ্যক লোকজন অংশগ্রহণ করেন।

মানববন্ধন চলাকালীন সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাপা নেতা সাংবাদিক এম এ সবুর রানা, কমলা সরকার, আব্দুর রশিদ হাওলাদার, মোল্লা আল মামুন, পশুর রিভার ওয়াটাকিপার ভলান্টিয়ার মাহারুফ বিল্লাহ, মেহেদী হাসান বাবু, শেখ রাসেল ও পরাগ মনি রাজু।

উল্ল্যেখ্য, ১৯৯৭ সালে ব্রাজিলে এক সমাবেশে নদীর প্রতি দায়বদ্ধতা মনে করিয়ে দিতে এ দিবস পালনের সিদ্ধান্ত হয়। সেই সমাবেশে সমবেত হয়েছিলেন বিভিন্ন দেশের বাঁধের বিরুপ প্রতিক্রিয়ার শিকার জনগোষ্ঠীর প্রতিনিধিরা। ওই সম্মেলন থেকেই ১৪ মার্চ আন্তর্জাতিক আন্তর্জাতিক নদীকৃত্য দিবস পালনের ঘোষণা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *