সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২১

পর্যটকদের জন্য খুলে দেয়া হলো জম্মু-কাশ্মীর

১ min read

নিউজ ডেস্ক: দীর্ঘদিন পর পর্যটন শিল্পের কথা বিবেচনা করে জম্মু-কাশ্মীরে পর্যটক প্রবেশের নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার ঘোষণা দিল ভারত সরকার। এর মাধ্যমে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে নিজেদের ইমেজ রক্ষার চেষ্টা করছে ভারত এমনটাই মনে করেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

দুই মাসেরও বেশি সময় পর পর্যটকদের জন্য খুলে দেয়া হলো জম্মু-কাশ্মীর। গত ৫ আগস্ট জম্মু-কাশ্মীরের ওপর থেকে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের পর পর্যটক এবং তীর্থযাত্রীদের কাশ্মীর ছেড়ে দেয়ার নির্দেশ দিয়েছিল প্রশাসন। তারপর থেকেই পর্যটকদের জন্য কাশ্মীরে প্রবেশ নিষিদ্ধ ছিল।

কাশ্মীরের গভর্নর সত্যপাল মালিকের নির্দেশে প্রায় দু’মাস পর ভূস্বর্গে পর্যটকদের ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হলো। সোমবার এ বিষয়ে এক নির্দেশনা দেয়া হয়। এক ঘোষণায় জানানো হয় যে, আগামী ১০ অক্টোবর থেকে জম্মু-কাশ্মীরে আগের মতোই পর্যটকদের জন্য উন্মুক্ত হচ্ছে।

এক সরকারি মুখপাত্র জানান, গভর্নর সত্যপাল মালিক পর্যটকদের ওপর থেকে দ্রুত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করতে প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়েছে। সে অনুযায়ী, ১০ অক্টোবর থেকেই নিষেধাজ্ঞা উঠে গেল।

জম্মু ও কাশ্মীরের তথ্য অধিদফতর এক টুইট বার্তায় জানিয়েছে, গভর্নর সত্যপাল মালিক কাশ্মীরের নিরাপত্তার বিষয়ে পরামর্শদাতা এবং মুখ্যসচিবের সঙ্গে আলোচনা করেছেন। তিনি স্বরাষ্ট্র দফতরকে দেওয়া নির্দেশিকায় বলেছেন, রাজ্য থেকে পর্যটক বেরিয়ে যেতে বলার আদেশ তুলে নেওয়া হয়েছে ১০ অক্টোবর থেকে।

সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কায় বিভিন্ন রাজ্যের কয়েক হাজার পর্যটক, তীর্থযাত্রী এবং শিক্ষার্থীদের কাশ্মীর ছেড়ে যাওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়।

সে সময় কাশ্মীরে প্রায় ২০ থেকে ২৫ হাজার পর্যটক ছিল। পর্যটনের জন্য এটাই কাশ্মীরের সবচেয়ে ভালো সময় হলেও সে সময় পর্যটকদের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। দীর্ঘদিন ধরেই কাশ্মীরে টেলিফোন এবং ইন্টারনেট সেবাও বন্ধ রাখা হয়।

গত জুনে কাশ্মীরে প্রায় ১ লাখ ৭৪ হাজার পর্যটক ভ্রমণ করেছেন। এছাড়া জুলাইয়ে ভ্রমণ করেছেন ১ লাখ ৫২ হাজার পর্যটক যার মধ্যে তিন হাজার ৪০৩ জন বিদেশি পর্যটক। কিন্তু গত আগস্টে কোনো পর্যটকই সেখানে ঘুরতে যেতে পারেননি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *