সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২১

নকল ঠেকাতে বাক্সে মাথা ঢুকিয়ে পরীক্ষা!

নিউজ ডেস্ক: এবার ভারতের কর্ণাটক রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী নকল বন্ধে কঠোর নির্দেশনা জারি করার পর শিক্ষার্থীদের কাগজের বাক্সে মাথা ঢুকিয়ে পরীক্ষায় বসতে হলো।

স্থানীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, কর্ণাটকের ভাগাত পিইউ কলেজের বিজ্ঞান বিভাগ প্রথমবর্ষের ৫০ জন শিক্ষার্থীকে বাক্সে মাথা ঢুকিয়ে পরীক্ষায় অংশ নিতে হয়েছে। তবে তাদের বাক্স সামনের দিকে চোখের জায়গায় ফুঁটা করা ছিল। যার মাধ্যমে তারা উত্তরপত্র দেখতে পাচ্ছিলেন। এই পরীক্ষার হল থেকে কয়েকটি ছবি ছড়িয়ে পড়ে। মুহূর্তেই সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে ঝড় তোলে ওই পরীক্ষার হলের ছবি। কয়েকটি ছবি সরকারি কর্তৃপক্ষের নজরেও আসে।

এই ঘটনা নজরে আসার পর রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী এস সুরেশ কুমার বলেছেন, শিক্ষার্থীদের সাথে পশুর মতো ব্যবহার করা হয়েছে। কলেজ কর্তৃপক্ষের এই ধরণের বিকৃত মানসিকতার জন্য শীঘ্রই তাদের জবাবদিহিতার আওতায় আসতে হবে। রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে এই ধরণের চর্চা বন্ধে ওই কলেজ কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

ওই কলেজের পরিচালক টাইমস অব ইন্ডিয়াকে জানান, শিক্ষার্থীদের অনুমতি সাপেক্ষেই তারা নকল প্রতিরোধে এ ধরণের একটি পরীক্ষামূলক পদ্ধতি প্রয়োগ করেছিলেন। তবে রাজ্যের শিক্ষা কর্তৃপক্ষ তাদের কাছে যে ধরণের নির্দেশনা জারি করবেন, তারা সেভাবেই কাজ করবেন, তার কোনো অন্যথা হবে না।

শিক্ষাংগনে এই প্রথম যে ভারতের ছাত্ররা এই ধরনের পরীক্ষামূলক ব্যবস্থার সম্মুখীন হয়েছেন তা নয়। কয়েকদিন আগেও ভারতের উত্তর প্রদেশের কলেজ শিক্ষার্থীদের বিপথে যাবার কারণ হিসেবে মোবাইল ফোনকে দায়ী করে, শিক্ষার্থীদের মোবাইল ফোন ব্যবহারের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিলেন কর্তৃপক্ষ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *