সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২১

দুইপক্ষের সংঘর্ষে এক মাদ্রাসাছাত্র গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছে

১ min read

নিউজ ডেস্ক : বাংলাদেশের সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে দুইপক্ষের সংঘর্ষে সাব্বির মিয়া নামে এক মাদ্রাসাছাত্র গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আরও দুইজনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

সন্ধ্যার দিকে উপজেলার রানীগঞ্জ ইউনিয়নের আলামপুর গ্রামে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

নিহত শিশু সাব্বির মিয়া নবীগঞ্জের কামারগাও নগরকান্দা গ্রামের আব্দুল কাইয়ুমের ছেলে। সে আলমপুর গ্রামের একটি মাদ্রাসার তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র। শিশু সাব্বির তার মামা ইজাজুল ইসলামের বাড়িতে থেকে লেখাপড়া করত।

পুলিশ ও স্থানীয় এলাকাবাসী জানান, আলমপুর গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা মজনু মিয়া ও তার আপন ভাই খালেদ মিয়ার মধ্যে স্থানীয় কুশিয়ারা নদীর তীরবর্তী বাসষ্ট্যান্ডের মালিকানার জায়গা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। ওই বাসস্ট্যান্ডের ম্যানেজার হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন মজনু মিয়ার ছেলে নোমান আহমদ। এ বিরোধকে কেন্দ্র করে আজ বিকালে বাসস্ট্যান্ড এলাকায় বৈঠক বসে।

বৈঠকে মজনু মিয়া উপস্থিত হননি। বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয় বাসস্ট্যান্ডের ম্যানেজার পদ থেকে মজনু মিয়ার ছেলে নোমানকে তার দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়ার। এই সিদ্ধান্ত জানাতে বাসষ্ট্যান্ডের শ্রমিক নেতা আলমপুর গ্রামের ইজাজুল ইসলাম, মমরাজ মিয়া গংরা মজনু মিয়ার বাড়িতে যান। এ সময় মজনু মিয়ার সঙ্গে তাদের বাকবিতণ্ডা সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন।

সংঘর্ষকালে ঘটনাস্থল এলাকায় শিশু সাব্বির দাঁড়িয়ে ছিল। ওই সময় প্রতিপক্ষের বন্দুকের গুলিতে শিশু সাব্বির নিহত হয়।

নিহত শিশুর মামা ইজাজুল ইসলাম জানান, বৈঠকের সিদ্ধান্ত জানাতে আমরা মজনু মিয়ার বাড়িতে গেলে তিনি আমাদেরকে গালি-গালাজ করতে থাকেন। এক পর্যায়ে প্রতিপক্ষের লোকজনও বন্দুক দিয়ে গুলি করতে থাকেন। এ সময় দাঁড়িয়ে থাকা আমার ভাগনে গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হয়।

এ বিষয়ে জানতে মজনু মিয়ার সঙ্গে একাধিকবার মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের ডা. শারমিন আরা আশা জানান, ঘটনাস্থলে শিশুটি মারা গেছে। তার মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন অংশে বন্দুকের গুলির আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

জগন্নাথপুর থানার ওসি ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী যুগান্তরকে জানান, বাসষ্ট্যান্ডের ম্যানেজারের পদ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় এক শিশু নিহত হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *