আগস্ট ৫, ২০২১

তিন শিশুর বিরুদ্ধে শিশুকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ

১ min read
তিন শিশুর বিরুদ্ধে শিশুকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ

তিন শিশুর বিরুদ্ধে শিশুকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ

যশোর প্রতিনিধি: যশোরের মণিরামপুরে তিন শিশুর বিরুদ্ধে পাঁচ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে।

গত শনিবার (১৩ মার্চ) উপজেলার পলাশী পশ্চিমপাড়ায় এই ঘটনা ঘটে। খেলার কথা বলে ডেকে নিয়ে বাড়ির পাশে একটি বাগানে হাত, পা ও মুখ চেপে ধরে শিশুটিকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়। এ ব্যাপারে রাতেই মণিরামপুর থানায় তিন জনের নাম উল্লেখ করে মামলা করেছেন ধর্ষণ চেষ্টার শিকার শিশুটির বাবা।

অভিযুক্ত তিন শিশু হলো- পলাশী পশ্চিমপাড়ার কামরুল হাসানের ছেলে খাইরুল (১৩), বাবলু হোসেনের ছেলে রানা (১৩) ও রাশিদা খাতুনের ছেলে মামুন (১২)। মামুনের বাবার নাম জানা যায়নি। পলাশী গ্রামে মায়ের সাথে নানা কপিল উদ্দিনের বাড়িতে থাকে সে। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর তিন শিশুকে নিয়ে তাদের বাবা-মা গা ঢাকা দিয়েছেন।

শিশুটির মা বলেন, দুপুরে মেয়ে গোসল করে খেলতে যাচ্ছিল। তখন রাস্তা থেকে রানা, খাইরুল ও মামুন খেলার কথা বলে তাকে পাশের একটি বাগানে নিয়ে যায়। সেখানে একটি গর্তে ফেলে ওরা তিনজন হাত-পা ও মুখ চেপে ধরে মেয়ের সর্বনাশ করার চেষ্টা করে। ঘটনাটি আমার প্রতিবেশী এক জা দেখে ফেললে ওরা দৌঁড়ে পালিয়ে যায়।

প্রত্যক্ষদর্শী এক নারী বলেন, ‘বাগানে ছাগলকে খাওয়াতে গিয়ে কথা শুনতে পাই। এগিয়ে গিয়ে দেখি বাচ্চাটা বারবার মাথা নাড়াচ্ছে। কিছু বলতে পারছে না। ওরা তিনজন শিশুটিকে চেপে ধরে রেখেছে। আমি কাছাকাছি গেলে ওরা পালিয়ে যায়।’

খেদাপাড়া ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই গোলাম রসুল বলেন, ‘খবর পেয়ে বিকেলে আমি ঘটনাস্থলে গিয়েছি। বাচ্চা ও তার স্বজনদের সাথে কথা বলে ঘটনার সত্যতা পেয়েছি।’

সন্ধ্যায় শিশুটিকে নিয়ে তার বাবা থানায় আসেন। তারা ওসিকে বিষয়টি জানানোর পর তিনি মামলা না নিয়ে তাদের বের করে দেন বলে অভিযোগ করেন শিশুটির বাবা। পরে অবশ্য ওসি মামলা নিতে রাজি হয়েছেন।

মণিরামপুর থানার ওসি রফিকুল ইসলাম বলেন, শিশুটির বাবার সাথে কথা হয়েছে। তিনি বাদী হয়ে মামলা করেছেন।
এদিকে, আজ (রবিবার) সকালে ধর্ষণ চেষ্টার শিকার ওই শিশু এবং তার বাবার জবানবন্দী রেকর্ডের জন্য আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *