তাদের ব্যর্থতা এখনও কাটেনি


June 14, 2019

স্পোর্টস ডেস্ক : বিশ্বকাপ মানেই তো বাড়তি উন্মাদনা। যেখানে অংশ নেয়া দেশগুলোর সেরা খেলোয়াড়দের একসঙ্গে পাওয়া। সেরাদের সেরাটা দেখার জন্যই তো মুখিয়ে থাকে সমর্থকেরা। বিশ্বকাপের আগে যাদের ব্যাট শাসন করেছে সব সেরা বোলারদের, রান করেছে যেকোনো কন্ডিশনে তারাই কি না বিশ্বমঞ্চে এসে রঙহীন সাদামাটা।

অংশ নেয়া ১০ দলের মধ্যে জয় পেয়েছে আট দল। এখনও জয় পায়নি দক্ষিণ আফ্রিকা আর আফগানিস্তান। যাদের ফেভারিট ধরা হয়েছে তারাই শাসন করে চলেছে এখনও। যেমনটা ইংল্যান্ড জিতেছে তিন ম্যাচের দুটিতে, ভারতের এক ম্যাচ বাতিল হলেও বাকি দুই ম্যাচে জিতেছে, নিউজিল্যান্ডও তিন ম্যাচে জয় পেয়েছে আর পরিত্যক্ত হয়েছে এক ম্যাচ। চার ম্যাচের ৩টি তে জিতেছে অস্ট্রেলিয়া, হেরেছে একটিতে।

এসব দলের সব সেরা খেলোয়াড়েরাই জ্বলে উঠেছে ইতোমধ্যে। যেমনটা সাকিব আল হাসান এখনও রান সংগ্রাহকের তালিকায় রয়েছেন ১ নম্বরে।

হাশিম আমলা
দক্ষিণ আফ্রিকান ওপেনার হাশিম আমলাকে ধরা হয় দলটির সবচেয়ে অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান। তার ব্যাটে নেই রান। যার খেসারত দিতে হচ্ছে প্রোটিয়াদের। চারটি ম্যাচ খেলে ফেললেও জয় নেই একটিও।

তিন ম্যাচ মিলে হাশিম আমলা করেছেন মাত্র ২৫ রান। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ১৩, ভারত আর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে করেছেন সমান ৬ রান। বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচে উইন্ডিজদের বিপক্ষে ৫১ রানের ইনিংস খেললেও তার ব্যাটে রান নেই মূল আসরে। অথচ আমলাকে দলে নেয়াই হয়েছিল পেসারদের বিপক্ষে লড়তে।

তামিম ইকবাল
শুধু বাংলাদেশেরই নয়, বিশ্বের তিন সেরা ওপেনারের একজন তামিম ইকবাল। ইংল্যান্ডের মাটিতেই তার সাফল্য অনেক। বিশ্বকাপের আগেও তামিম খেলেছেন দুর্দান্ত। কিন্তু বিশ্বকাপে এসে এই বাঁহাতি ওপেনারকে দেখা গেছে ছন্নছাড়া ব্যাটিং করতে।

বাংলাদেশের চার ম্যাচের একটি বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত হলেও বাকি তিন ম্যাচ মিলে তামিম করেছেন ৬১.২৮ স্ট্রাইক রেটে মাত্র ৫৯ রান। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ১৬, নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ২৪ আর ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ১৯ রান।

অথচ তারই সতীর্থ সাকিব আল হাসান আর মুশফিকের বিশ্বকাপ কাটছে দুর্দান্ত।

মার্কুস স্টয়নিস
ব্যাটে-বলে অস্ট্রেলিয়া দলের সেরা অলরাউন্ডার বলা যায় মার্কুস স্টয়নিসকে। ২৯ বছর বয়সী এই ডান-হাতি অলরাউন্ডার ব্যাটে-বলে দুর্দান্ত পারফর্ম করে জায়গা করে নিয়েছেন বিশ্বকাপের দলে কিন্তু, বিশ্বকাপে এসে যেন নিজেকে হারিয়ে খুঁজছেন স্টয়নিস।

এখন পর্যন্ত তিন ম্যাচ খেলে ফেললেও উইকেট নিয়েছেন ৬.২২ ইকোনোমিতে কেবল ৪টি। ব্যাট হাতে মাত্র ১৯ রান করেছেন তিনি।

0 30

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
আজকের সংবাদ শিরোনাম :
%d bloggers like this: