সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২১

ছাত্রলীগের এ মিছিলে শুধু খুনের রক্ত:ভিপি নুর

১ min read

নিউজ ডেস্ক :কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের ডাকসু সহ-সভাপতি ভিপি নুরুল হক নুর বলেছেন যে আবরার হত্যার ঘটনা অন্য দিকে প্রবাহিত করার জন্যে ছাত্রলীগের এ নাটক। তিনি বলেন ছাত্রলীগের এ মিছিলে খুনের রক্ত।যখন ছাত্রসমাজ জেগে উঠেছে সেই ছাত্রসমাজকে থামানোর জন্যে লোক দেখানো অনেক ধরনের নাটকের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। লোক দেখানো নাটকীয় শোকমিছিল করেছে। কিন্তু তাদের চিন্তা এটা নয়।

বৃহস্পতিবার দুপুর ২টায় রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে গণপদযাত্রা শেষে তিনি সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন। বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যাকারীদের বিচার চেয়ে এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

নুর বলেন, ছাত্রলীগ শুধু এক বুয়েটকেই হত্যা করেনি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে হাফিজুরকে মেরেছে, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়াও প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীর রক্তে রঞ্জিত হয়েছে। এই ধরনের সন্ত্রাসী কার্যক্রম মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা দিক যে, ছাত্রলীগের দ্বারা আর কোনো সাধারণ শিক্ষার্থী নির্যাতিত হবে না। এ ঘোষণা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দিক।

ভিপি নুর বলেন, আবরার হত্যাকাণ্ডসহ সব ছাত্রের হত্যার ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে হবে। ক্যাম্পাসগুলোতে ছাত্ররা যেন টর্চার সেলে নির্যাতনের শিকার না হয়। শুধু ক্ষমতাসীন দল নয় আমরা দেখেছি যখন যে দল ক্ষমতায় থাকে তাদের সংগঠনগুলো কিন্তু এই একই কাজ করেছে। আজকে ছাত্রসমাজ এ ক্যাম্পাসের গণতান্ত্রিক অধিকার নিশ্চিত করা, আবরার হত্যাকাণ্ডের বিচার এবং দেশের স্বার্থবিরোধী চুক্তি এ দাবিগুলোতে আজকে ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। আমাদের এ প্রতিবাদের মধ্য দিয়েই চাই শিক্ষাঙ্গনে শুভ সূচনা হোক।

কোটা সংস্কারের এ নেতা বলেন, আপনারা জানেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ঘোষণা দিয়েছে মাস্টার্স শেষ হলে ১৫ দিনের মধ্যে হল ছাড়তে হবে। এটি একটি ভালো উদ্যোগ। আমরাসহ বিভিন্ন ছাত্রসংগঠন এ উদ্যোগ নেয়ার জন্য দাবি জানিয়ে আসছিল। কিন্তু আন্দোলন বন্ধ হয়ে গেলে এ ধরনের উদ্যোগ ভেস্তে যায়। এটি আমাদের পূর্ব অভিজ্ঞতা রয়েছে। আমরা যে অন্যায়ের বিরুদ্ধে ও নিপীড়নের বিরুদ্ধে এবং হত্যার বিরুদ্ধে ছাত্ররা যে প্রতিবাদ শুরু করেছি আজকে আবরার হত্যার বিচার নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত বিভিন্ন কর্মসূচি আমাদের চলমান থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *