সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২১

গুগলের মানচিত্রে সার্চ দিলে আবরারের নামে হল আর খুনিদের নামে টয়লেট

নিউজ ডেস্ক : বাংলাদেশ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের বর্বর নির্যাতনে নিহত হওয়া বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের বুয়েট তড়িৎ কৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের নামে শেরেবাংলা হলের নামকরণ করা হয়েছে।গুগলের মানচিত্রে সার্চ দিলে এখন এমনটাই দেখা যাচ্ছে। যদিও বুয়েট প্রশাসন কিংবা সরকারিভাবে এরকম কোনো উদ্যোগ নেয়ার খবর এখন পর্যন্ত পাওয়া যায়নি।
তাছাড়া হলের ভেতরে থাকা চারটি টয়লেট বা শৌচাগারের নামকরণ করা হয়েছে আবরারের খুনিদের নামে।বুধবার সকাল থেকেই স্থান খোঁজার জনপ্রিয় সার্চ ইঞ্জিন গুগল ম্যাপে বুয়েটের শেরেবাংলা হলের নাম পরিবর্তিত হয়ে দেখাচ্ছে শহীদ আবরার হল।হলের মসজিদের নাম হয়েছে শহীদ আবরার হল মসজিদ।গুগল ম্যাপ বলছে, টয়লেটগুলোর নাম এখন কিলার রবিন পাবলিক টয়লেট, কিলার অনিক সরকার পাবলিক টয়লেট, অপ্রেসার রাসেল পাবলিক টয়লেট ও অমিত সাহা পাবলিক টয়লেট।সাধারণত গুগলের কমিউনিটি মেম্বারদের রেফার থেকে কোনো বিষয়ে নামকরণ করা হয় গুগল ম্যাপে।বিশেষজ্ঞরা বলছেন, গুগল কমিউনিটি মেম্বার থেকে এক বা একাধিক সদস্য স্থাপনাগুলোর এমন নামকরণ করে রেফার করেছেন। যা অনেকটা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই আপডেট হয়েছে গুগলের ম্যাপে। তবে গুগল কর্মকর্তাদের নজরে আসলে মুছে যেতে পারে নতুন নামগুলো বলে জানিয়েছেন তথ্যপ্রযুক্তি বিশ্লেষকরা।এই স্থানের নামগুলো গুগোল পরিবর্তন করেনি করেছে কিছু ভলান্টিয়ার লোকজন। গুগল ম্যাপ শুধুমাত্র বাংলাদেশের লোকজন ব্যবহার করেনা আন্তর্জাতিক লোকজনও বাংলাদেশের স্থান খুঁজতে ব্যবহার করে। সেখানে সরকার যদি কোনো সিদ্ধান্ত নিয়ে না থাকে কিংবা বুয়েট কর্তৃপক্ষ ওই স্থানে আমরা ভলান্টিয়াররা এ ধরনের গর্হিত কাজ করে অপরাধ করছি।আর একটা স্থানের নাম পরিবর্তন করে আপনি রাষ্ট্র উদ্ধার করে ফেলেননি; পারলে সরকারের বা বুয়েট কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করুন হলের নাম পরিবর্তন করতে কিংবা লাইব্রেরির নাম আবরারের নামে করলে সেটা হতে পারে একটি স্মৃতিস্তম্ভ।এর আগেও ২০১১ সালে বারবার ভারত দূতাবাসের সামনে ফেলানী রোড লিখছিল তখন আমরা প্রায় রাত জেগে দুইদিন ম্যাপ ঠিক করতাম। তাই সবার প্রতি অনুরোধ এই ধরনের ভিডিও কিংবা বিভিন্ন নিউজ শেয়ার না করে চুপচাপ থাকা। আশা করি তাদের পাগলামি কমলে এরপরে আমরা আবার সকলে মিলে স্থানগুলো ঠিক করে নেব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *