এবার চাঁদ নিয়ে ট্রাম্পের বেফাঁস মন্তব্য


জবাবদিহি ডেস্ক : বরাবরই আলোচনা ও সমালোচনার শীর্ষে থাকতে পছন্দ করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ট ট্রাম্প। বেফাস মন্তব্য যেন তার নিত্য দিনের সঙ্গী হয়ে গেছে।

মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স গত বছর ঘোষণা দিয়েছিলেন, যুক্তরাষ্ট্র আবারও চন্দ্রপৃষ্ঠে অভিযানে যাবে। আর চলতি বছরের মার্চে নাসার প্রশাসক জিম ব্রাইডেনস্টেইন জানান, ২০২৪ সালের মধ্যে আবারও চাঁদের মাটিতে পা রাখতে চলেছে যুক্তরাষ্ট্র। হোয়াইট হাউসের সম্মতির পর সে লক্ষ্যে কাজও শুরু করে দেয় নাসা।

গত ১৩ মে এক টুইট বার্তায় ট্রাম্পও চাঁদে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন। কিন্তু তিন সপ্তাহের ব্যবধানে শুক্রবার এ বিষয়ে নতুন করে টুইট করতে গিয়ে ভিন্নরকম বক্তব্য দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

টুইটারে তিনি নাসাকে চাঁদকে বাদ দিয়ে মঙ্গলগ্রহের মতো আরও বড় কোনও লক্ষ্যের প্রতি মনোযোগী হতে বলেন।

নাসার মতো সংস্থা সঠিক লক্ষ্য রেখে ছোট অভিযানের দিকে অর্থ খরচ করছে বলে সরাসরি আক্রমণ করেন ট্রাম্প। চাঁদকে অপেক্ষাকৃত ছোট লক্ষ্যবস্তু বোঝাতে গিয়ে এক পর্যায়ে চাঁদকে মঙ্গলগ্রহের অংশ বলে উল্লেখ করে বসেন তিনি।

ট্রাম্প টুইটারে লিখেছেন, ‘আমরা ৫০ বছর আগেই চাঁদে গিয়েছি। এখন আর সেখানে যাওয়া জরুরি নয়। নাসার উচিত আরও বড় লক্ষ্যের দিকে তাকানো।’

তিনি আরও লেখেন, আমরা এত এত টাকা খরচ করছি। চাঁদে যাওয়ার আলোচনা বন্ধ করা উচিত নাসার। নাসার উচিত বড় লক্ষ্যে দৃষ্টি দেওয়া।

ট্রাম্পের এমন টুইটে যেমন হতবাক হয়েছেন তেমনই হতাশও হয়েছেন মহাকাশ সংশ্লিষ্টরা।

ট্রাম্পের এমন দ্বিমুখী আচরণ এটাই প্রথম নয়। এর আগেও সমর্থন জানিয়ে বহু সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেছেন তিনি। তাছাড়া অনেক অবৈজ্ঞানিক কথাবার্তাও শোনা গেছে তার মুখ থেকে।

এর আগে জলবায়ু বিজ্ঞানীদের ব্যাখ্যাকেও প্রত্যাখ্যান করেছিলেন ট্রাম্প। সে সময় ট্রাম্প জানিয়েছিলেন, বিশ্বের জলবায়ু পরিস্থিতি নিয়ে বিজ্ঞানীরা যা বলেন এবং পরিসংখ্যানে যা উঠে আসে তার সঙ্গে বাস্তবের মিল নেই। বলে মন্তব্য করেছিলেন এ মার্কিন প্রেসিডেন্ট। সূত্র : দ্য গার্ডিয়ান

0 30

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আজকের সংবাদ শিরোনাম :
%d bloggers like this: