সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২১

আবরারকে যেদিন হত্যা করা হয় সে দিনকে ‘শহীদ দিবস’পালনের আহ্বান

১ min read

নিউজ ডেস্ক :মেধাবী শিক্ষার্থী আবরারকে যেদিন খুন করা হয়,সেই দিনটিকে ‘শহীদ দিবস’ হিসেবে পালনের জন্য অনরোধ জানিয়েছে বিএনপির মওদুদ আহমদ।
দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এ কথা বলেন।

মওদুদ আরও বলেন,বাংলাদেশের স্বাধীনতা রক্ষার জন্য কথা বলার জন্য ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের হাতে নির্মমভাবে খুন হয়েছে আমাদের আবরার।

তিনি আরও বলেন,বাংলাদেশের সব গুলো বিশ্ববিদ্যালয়ের হলে তাদের বানানো টর্চার সেল রয়েছে। সেই সব টর্চার সেলে নিয়ে গিয়ে বিরোধী পথ ও মতের শিক্ষার্থীদের অনেক অত্যাচার নির্যাতন করা হয়।ঠিক একইভাবে বুয়েটের ২০১১ নম্বর রুমে ফাহাদকে খুন করা হয়েছে।প্রায় পাঁচ ঘণ্টা ধরে তার ওপর চলে নির্মম নির্যাতন।

বিএনপির এ নেতা বলেন, সারা দেশের মানুষ জানে চুক্তি অনুযায়ী ফেনী নদী থেকে প্রতি সেকেন্ডে ৫০ লিটার হিসেবে ২৪ ঘণ্টায় ৪ লাখ লিটার পানি যাবে। এ পানি আমাদের প্রয়োজন। এমনিতেই আমাদের শুকনো মৌসুমে পানি থাকে না। অথচ তিনি (প্রধানমন্ত্রী) বললেন- বাংলাদেশের কোনো স্বার্থ তিনি বিক্রি করে আসেননি।

মওদুদ বলেন, রাজপথের আন্দোলনের মাধ্যমে সরকারকে হটিয়ে একটি নির্বাচিত গণতান্ত্রিক সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। একই সঙ্গে খালেদা জিয়া ও গণতন্ত্রকে মুক্ত করতে হবে। এ জন্য দেশের সব দেশপ্রেমিক শক্তি ও দলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে) একাংশের সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন রুহুল আমিন গাজীর সভাপতিত্বে ও সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদের সদস্য সচিব ডা. এজেড এম জাহিদ হোসেনের পরিচালনায় মানববন্ধনে আরও বক্তব্য রাখেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা প্রফেসর ডা. আব্দুল কুদ্দুস, বিএফইউজের মহাসচিব এম আব্দুল্লাহ, সাংবাদিক নেতা আব্দুস শহীদ, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) সভাপতি কাদের গনি চৌধুরী, বিএনপির শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক ওবায়েদুল ইসলাম, বিএনপির সহপ্রচার সম্পাদক কৃষিবিদ শামীমুর রহমান শামীম, নির্বাহী কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট আবেদ রাজা, অ্যাডভোকেট রফিক সিকদার প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *