সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২১

আপাতত আমরা খুশি, বললেন সাকিব

১ min read

নিউজ ডেস্ক: মিডিয়ার সামনে ১১ দফা দাবি উত্থাপন করে সোমবার বিকেলে ক্রিকেটাররা ধর্মঘটের ডাক দেন। এরপর চলতে থাকে নানা নাটকীয়তা। মঙ্গলবার পেরিয়ে বুধবার বিকেলে আরও একবার মিডিয়ার সামনে এসে নতুন করে দাবিগুলো উত্থাপন করেন ক্রিকেটাররা। তবে সেখানে আরও দুটি দাবি যোগ করা হয়।

অবশেষে রাতে মিরপুরে বিসিবি কার্যালয়ে এসে সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনসহ বিসিবি কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন ক্রিকেটাররা। এরপরই যৌথ সংবাদ সম্মেলনে বিসিবি জানিয়ে দেয়, তারা প্রায় সব দাবি মেনে নিয়েছে। অন্যদিকে ক্রিকেটাররাও জানিয়েছেন, তারা ধর্মঘট প্রত্যাহার করে খেলার মাঠে ফিরবেন।

বিসিবি কর্মকর্তা এবং ক্রিকেটার বৈঠকের পর যৌথ সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন এবং আন্দোলনে নেতৃত্বদানকারী, টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিসিবির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং আন্দোলনকারী ক্রিকেটারদের অনেকেই।

ক্রিকেটারদের হয়ে কথা বলেন সাকিব আল হাসান। তিনি জানিয়েছেন, আপাতত বিসিবির ঘোষণায় তারা খুশি। তবে দাবিগুলো দ্রুত বাস্তবায়ন হলে তারা পুরোপুরি খুশি হতে পারবেন।

সাকিব শুরুতে জানান, আলোচনা ফলপ্রসূ হয়েছে। তিনি বলেন, ‘আমার কাছে মনে হয়, যতটুকু হয়েছে, তাতে আলোচনা ফলপ্রসূ হয়েছে এবং ভালোভাবে হয়েছে। আমাদের যেসব ডিমান্ড ছিল সেগুলোর ব্যাপারে ওনারা (বিসিবি) আমাদের আশ্বাস দিয়েছেন- যত দ্রুততর সময়ে সম্ভব সেগুলো বাস্তবায়ন করবেন। এই আশ্বাসের ভিত্তিতেই আমরা জাতীয় দলের খেলোয়াড় এবং লিগে খেলা খেলোয়াড়রা ক্রিকেটে ফিরে আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ওরা শনিবার থেকে এনসিএল খেলবে। আমরা ২৫ তারিখে ফিরব জাতীয় দলের ক্যাম্পে।’

১১টা দাবি নিয়েই বিসিবির সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। সাকিব বলেন, ‘আমাদের ডিমান্ড ছিল ১৩টা। কালকের যে ১১টা- ওগুলো নিয়েই কথা হয়েছে। আজকের নতুন দুটি আলোচনা হয়নি। কারণ, ওই দুটা মাত্র তারা দেখছেন এবং এগুলো নিয়ে সময় লাগবে বলছেন। ওনারা বলেছেন যতদ্রুত সম্ভব বাকি দাবিগুলো বাস্তবায়ন করবেন। তাই আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি শনিবার থেকে এনসিএল খেলব এবং ২৫ অক্টোবর থেকে ভারত সফরের প্রস্তুতি শুরু করব।’

বাকি দুই দাবি সম্পর্কে আবারও প্রশ্ন করা হলে সাকিব বলেন, ‘ওই দুটি বিষয় যেহেতু আজ প্লেস করছি, এগুলো নিয়ে কথা হয়নি। ওনারা বলছেন, বুঝে-শুনে আমাদের সাথে আলোচনা করবেন। কোয়াব নিয়ে দুর্জয় ভাইয়ের সঙ্গে আমাদের কথা হয়েছে। যতদ্রুত সম্ভব আমরা চাই নির্বাচন। দুর্জয় ভাই বলেছেন, নির্বাচন হতে হবে। নির্বাচনের মাধ্যমে নতুন কমিটি আসতে হবে। রানিং ক্রিকেটারদের মধ্য থেকেও নেতৃত্ব আসবে।’

সাকিব আল হাসানরা আপাতত খুশি। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘যেহেতু আমাদের অধিকাংশ দাবিই মেনে নিয়েছেন এবং দ্রুত বাস্তবায়ন করবেন বলেছেন, দাবিগুলো বাস্তবায়ন হলে তখন খুশি হতে পারব। তবে যতটুকু আলোচনা হয়েছে, তাতে আপাতত আমরা তাতে খুশি।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *