আফগানিস্তানে নারী সাংবাদিককে গুলি করে হত্যা


জবাবদিহি ডেস্ক : আফগানিস্তানে দিনের বেলা প্রকাশ্যে গুলি করে প্রখ্যাত সাংবাদিক ও সমাজকর্মী মীনা মঙ্গলকে হত্যা করা হয়েছে। তিনি বেশ কিছুদিন ধরে হত্যার হুমকি পাচ্ছিলেন বলে সোশ্যাল মিডিয়ায় জানিয়েছিলেন। তারপরই শনিবার সকালে দক্ষিণ-পূর্ব কাবুলের রাস্তায় তাকে গুলি করে হত্যা করে দুষ্কৃতকারীরা।

গত ৩ মে নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে জীবননাশের আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন মীনা। তারপরও তাকে নিরাপত্তা দেয়া হয়নি কেন, তা নিয়ে ইতোমধ্যেই প্রশ্ন তুলেছেন আফগান মানবাধিকার আইনজীবী ও নারী অধিকারকর্মী ওয়াজমা ফ্রোঘ।

তিনি বলেন, হুমকি পাচ্ছেন বলে জানানো সত্ত্বেও কেন তাকে নিরাপত্তা দেয়া হলো না? এর উত্তর চাই আমরা। পুরুষদের সঙ্গে একমত না হলেই প্রাণ হারানোর এই প্রথা আমাদের সমাজে আর কতদিন চলবে?

তবে কে বা কারা মীনা মঙ্গলকে হত্যা করেছে তা এখনও পর্যন্ত নিশ্চিতভাবে জানা যায়নি। যদিও মীনার মা স্থানীয় একটি সংগঠনের দিকে আঙুল তুলেছেন। তার দাবি, পর্দাপ্রথার বিরুদ্ধে গিয়ে নারী শিক্ষার হয়ে প্রশ্ন তোলায় এর আগে মীনাকে অপহরণ করেছিল ওই সংগঠনের লোকজন। সেইসময় তাদের গ্রেপ্তারও করা হয়েছিল। কিন্তু প্রশাসনের কর্মকর্তাদের ঘুষ দিয়ে অল্পদিনের মধ্যেই জেল থেকে বেরিয়ে আসে তারা।

এ নিয়ে কোনও মন্তব্য না করলেও আফগান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নুসরাত রহিমি বলেন, মীনা মঙ্গলের হত্যাকারীদের এখনও পর্যন্ত শনাক্ত করা যায়নি। তবে তদন্ত শুরু হয়েছে। আততায়ীদের খোঁজে গঠন করা হয়েছে বিশেষ পুলিশ ইউনিটও।

উল্লেখ্য, আফগানিস্তানের বৃহত্তম বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল টোলো টিভির সঞ্চালক হিসেবে জনপ্রিয়তা পান মীনা মঙ্গল। পরবর্তীকালে তাদের প্রতিদ্বন্দ্বী শামশাদ টিভিতেও কাজ করেছেন তিনি। এছাড়া নারী অধিকার এবং নারী শিক্ষা সংক্রান্ত বিভিন্ন সামাজিক কাজকর্মে সক্রিয়ভাবে যুক্ত ছিলেন মীনা। সম্প্রতি সাংস্কৃতিক উপদেষ্টা হিসেবে আফগান সংসদের নিম্নকক্ষেও জায়গা পান তিনি। তাই মীনাকে এভাবে হত্যা করায় প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে সে দেশের বুদ্ধিজীবী মহলে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
আজকের সংবাদ শিরোনাম :
%d bloggers like this: