মুশফিকের দোষ নেই, এটা খেলারই অংশ: মাশরাফি


স্পোর্টস ডেস্ক : আগে নিজে রান আউট হয়েছেন, পরে কেন উইলিয়ামসনের সহজ রান আউট মিস করে সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে মুশফিকুর রহিমকে। লন্ডনের কেনিংটন ওভালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টসে হেরে আগে ব্যাটিং করে বাংলাদেশ।

ব্যাটিং করতে নেমে শুরু থেকেই কিউই বোলারদের সামনে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে টাইগাররা। এমন অসময় বাংলাদেশ দলের অনেক এসেছিল কিন্তু সেই সময়গুলোতে দলকে বিপদ মুক্ত করে বড় রান এনে দেন মুশফিক। বেশি দূর না তাকালেও হবে। এই তো বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সাকিবের সঙ্গে ১৪২ রানের জুটি গড়ে নিজে খেলেছিলেন ৮০ বলে ৭৮ রানের ইনিংস।

সেদিন দলের সম্মিলিত পারফরম্যান্সে শেষ পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে দেয় বাংলাদেশ। নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মুশফিকের ব্যাটে আসে মাত্র ১৯ রান। বড় স্কোরও পায়নি বাংলাদেশ।

কিন্তু ২৪৪ রান সংগ্রহ করেও যেভাবে হারিয়ে দিচ্ছিল নিউজিল্যান্ডকে তাতে শেষপর্যন্ত সমালোচনার তীর বিঁধে মুশফিকের গায়ে। কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনকে সহজ রান আউট না করতে পারার পর রস টেইলরকে নিয়ে ১০৫ রানের জুটি গড়ে বাংলাদেশকে হারানোর কাজটা সহজ করে দেন।

শেষ পর্যন্ত হেরে যায় বাংলাদেশ। ম্যাচের ভালো-খারাপ কাটা ছেড়ার পর ঘুরে ফিরে দোষটা মুশফিকের উপরই যায়। একে তো বড় রান করতে পারেননি আর উইলিয়ামসনকে করতে পারেননি সহজ রান আউট।

সব দোষ যখন মুশফিকের তখন তার পাশে ঠিকই দাঁড়িয়ে গেলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা।

ম্যাচ শেষ সংবাদ সম্মেলনে বলেন, মুশির ওপর চড়াও হওয়ার কিছু নেই। এটা যে কারও সঙ্গেই হতে পারত। সে চেষ্টা করেছে। থ্রো ছিল সোজাসুজি, কিপার হিসেবে বোঝা কঠিন যে স্টাম্পে লাগত নাকি না। সে চেষ্টা করেছিল আগে থেকে বল ধরতে, কিন্ত কনুইয়ে লেগে সম্ভবত বেলস পড়ে যায়। মাঠে এ রকম ভুল হয়ই। আমার মনে হয় না, ওর পিছু লাগার কারণ আছে।

উইলিয়ামসনকে রান আউট করতে না পারলেও পরে দারুণ দুটি ক্যাচ নিয়ে মুশফিকই আবার ম্যাচে ফিরিয়েছিল বাংলাদেশকে। মাশরাফির বিশ্বাস, মুশফিক ও দল, এভাবে ঘুরে দাঁড়াবে শিগগিরই।

‘মুশফিক অবশ্যই পেশাদার, জানে এসব কিভাবে সামলাতে হয়। এমন তো নয় যে মুশি জীবনে প্রথম ভুল করেছে। ভুল সবারই হয়। সব ক্রিকেটারই সহজ ক্যাচ মিস করতে পারে। আগর ম্যাচে সৌম্য ক্যাচ ছেড়েছিল। আগে সে অনেক কঠিন ক্যাচও নিয়েছে। এ রকম সবারই হয়। মুশফিকের ক্ষেত্রেও হতে পারে, সামনেও হতে পারে।’

তবে দিনশেষে মাশরাফির আফসোস, সাকিব-মুশফিকের জুটিটা যদি একটু বড় হতো তাহলে ম্যাচের চিত্রটা ভিন্ন হতে পারতো।

‘মুশফিকের রান আউট। ওরা দুজনই সেট হয়ে গিয়েছিল, তার পর মুশফিক রান আউট হয়ে গেল। এরপর সাকিব ও মিঠুন জুটি গড়ল, কিন্তু বড় করতে পারল না। ওই দুই জুটির একটি ৮০ বার ১০০ হলে স্কোর বড় হতে পারত। তখন খেলাও অন্যরকম হতে পারত।’

0 30

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
আজকের সংবাদ শিরোনাম :
%d bloggers like this: