ভারত থেকে বেরিয়ে যাওয়ার হুমকি কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রীর


জবাবদিহি ডেস্ক : ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সংবিধানের ৩৭০ ধারাকে ক্ষণস্থায়ী বলে উল্লেখ করেছেন। এই ধারার তুলে নেয়ার বিষয়ে সংসদে আলোচনাও শুরু হয়েছে। অমিত শাহ বলেছেন, এ বিষয়ে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়া হবে।

ভারতের সংবিধানের ৩৭০ ধারায় কাশ্মীরকে বিশেষ ক্ষমতা দেয়া হয়েছে। তাই এই ধারা তুলে নেয়ার ব্যাপারে সোমবার ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর মন্তব্যের পর মুখ খুলেছেন জম্মু ও কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও ন্যাশনাল কনফারেন্সের নেতা ফারুক আবদুল্লাহ।

তিনি বলেছেন, ৩৭০ ধারা ক্ষণস্থায়ী হলে আমরাও (কাশ্মীর) ভারতের সঙ্গে ক্ষণস্থায়ী। কেন্দ্র ৩৭০ ধারাকে ক্ষণস্থায়ী ঘোষণা করলে কাশ্মীরের ভারতের অন্তর্ভুক্তিও ক্ষণস্থায়ী হয়ে যাবে বলে দাবি করেছেন ফারুক আবদুল্লাহ।

দীর্ঘদিন ধরেই ভারতের সংবিধানের এই ৩৭০ ধারা নিয়ে বিতর্ক চলছে। এই ধারার কারণে আর্থিকসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ সুযোগ সুবিধা লাভ করে থাকেন ওই রাজ্যের বাসিন্দারা। সেই সুবিধা বাতিল করার জন্য গত কয়েক বছর ধরে আন্দোলন করছে একাধিক সংগঠন। বিজেপি দ্বিতীয় দফায় ক্ষমতায় আসার পর সেই দাবি আবারও জোরালো হতে শুরু করেছে।

ফারুক আবদুল্লাহ বলেন, ১৯৪৭ সালে কাশ্মীর বিষয়ে রাজ্যের মানুষজনের মতামত নেয়ার জন্য গণভোটের দাবি উঠেছিল। কিন্তু তা মানা হয়নি। তাহলে এখন ৩৭০ ধারা তুলে নেয়ার কথা হচ্ছে কেন? তিনি বলেন, স্বাধীনতার সময়ে রাজা হরি সিং কাশ্মীরকে ভারতের অন্তর্ভুক্ত করেছিলেন। সেটা আমরা মেনে নিয়েছিলাম। এখন ৩৭০ ধারা ক্ষণস্থায়ী হলে সেই চুক্তিও ক্ষণস্থায়ী হয়ে যাবে।

উল্লেখ্য, সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনের আগে বিজেপির বিভিন্ন জনসভায় ৩৭০ ধারা তুলে নেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন দলটির নেতারা। যা নিয়ে অনেক বিতর্কের তৈরি হয়। এমনকি কাশ্মীরে বিজেপির একসময়কার জোটসঙ্গী পিডিপি’র নেত্রী মেহবুবা মুফতি হুমকি দিয়ে বলেছিলেন যে, ৩৭০ ধারা তুলে নেয়া হলে সারা দেশে আগুন জ্বলবে।

0 30

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আজকের সংবাদ শিরোনাম :
%d bloggers like this: