নয়ন বন্ডের মৃত্যুতে দেশে বিভিন্ন স্থানে মিষ্টি বিতরণ


জবাবদিহি ডেস্ক : বরগুনায় রিফাত হত্যা মামলার প্রধান আসামি ও মাদক ব্যবসায়ী নয়ন বন্ড মঙ্গলবার (০২ জুলাই) সকালে পুলিশের সঙ্গে বন্ধুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন। নয়নের মৃত্যুর পর তার লাশকে লাইন ধরে দেখতে দিয়েছে পুলিশ। আর এ ঘটনায় দেশের বিভিন্ন স্থানে মিষ্টি বিতরণ করেছে সাধারণ জনতা।

কথিত বন্দুকযুদ্ধে নয়ন বন্ড নিহত হওয়ার পর তার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য বরগুনা সদর হাসপাতালে আনা হয়। সেখানে লাশটি দেখার জন্য কয়েকশ মানুষ জড়ো হন। এসময় তাদেরকে উল্লাস করতে দেখা যায়। অনেকে মিষ্টি বিতরণও করেছেন এই অপরাধীর মৃত্যু হওয়ায়। পুলিশ জনতাকে লাইন ধরে লাশ দেখার সুযোগ দেয়।

পুলিশ জানায়, আসামি ওই এলাকায় অবস্থান করছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে সেখানে অভিযান চালায় তাদের একটি দল। এ সময় উপস্থিতি টের পেয়ে নয়ন ও তার সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়ে। পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। এক পর্যায়ে পিছু হটে সন্ত্রাসীরা। পরে বেড়ি বাঁধের পাশ থেকে নয়নের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বরগুনা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

গত বুধবার স্ত্রীকে কলেজ থেকে নিয়ে যাওয়ার সময় স্বামী রিফাতকে নৃশংসভাবে কুপিয়ে আহত করে নয়ন ও তার সহযোগীরা। গুরুতর অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে বরিশাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রিফাতের মৃত্যু হয়।

0 30

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আজকের সংবাদ শিরোনাম :
%d bloggers like this: