তীব্র দাবদাহে বিপর্যস্ত নয়াদিল্লি


জবাবদিহি ডেস্ক : তীব্র দাবদাহে বিপর্যস্ত ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিসহ পুরো উত্তরাঞ্চলের জনজীবন। সোমবার (১০ জুন) দেশটির সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় রাজস্থানের ঢোলপুরে ৫১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। অন্যদিকে, রাজধানী নয়াদিল্লিতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল রেকর্ড ৪৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা শহরটির ইতিহাসে সর্বোচ্চ। এছাড়াও, আরও বেশ কয়েকটি অঞ্চলেও তাপমাত্রা ৪৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ওপরে রেকর্ড করা হয়েছে। এদিকে, পরিস্থিতি মেকাবিলায় রাজধানীতে রেড অ্যালার্ট জারি করেছে ভারতের আবহাওয়া বিভাগ।

জুন মাস আসলেই, তীব্র গরমে পুড়তে থাকে ভারতের অধিকাংশ রাজ্য। তবে, এবারের দাবদাহ যেন হার মানাচ্ছে আগের সব রেকর্ড। গেল কয়েকদিন ধরেই, প্রখর খরতাপে বিপর্যস্ত রাজধানী নয়াদিল্লিসহ ভারতের উত্তরাঞ্চল। এর মধ্যেই সোমবার নয়াদিল্লির সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছাড়িয়ে গেছে আগের সব রেকর্ড। এদিন রাজধানীর তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ইতিহাসের সর্বোচ্চ ৪৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। স্বভাবতই যার প্রভাব পড়েছে দৈনন্দিন জনজীবনে। বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হচ্ছেন না কেউই।

একজন পরিবহণ চালক বলেন, ‘প্রচণ্ড গরমে রাস্তায় কোন যাত্রী নেই। দেখতেই পাচ্ছেন রাস্তাঘাটে লোকজন কত কম। বিকেল পর্যন্ত আমরা এক প্রকার অলস সময়ই পার করি। বিকেলে গরম কিছুটা কমলেই কেবল আমরা যাত্রী পাই।’

আরেকজন বলেন, ‘পৃথিবীর তাপমাত্রা প্রতিনিয়তই বাড়ছে, যার প্রমাণ অব্যাহত এই দাবদাহ। বৈশ্বিক উষ্ণায়নের কারণে প্রতিদিনই আমাদেরকে নানা ধরনের শারীরিক সমস্যার মুখোমুখি হতে হচ্ছে।’

তবে, রাজধানীতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪৮ ডিগ্রি রেকর্ড করা হলেও, সোমবার ভারতের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছাড়িয়ে গেছে ৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। রাজস্থানের ঢোলপুরে এদিন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৫১ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

এছাড়াও, পাঞ্জাব, হরিয়ানাসহ আরও বেশ কিছু অঞ্চলে ৪৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ওপর তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির আবহাওয়া বিভাগ।

তীব্র গরম থেকে রেহাই পেতে রাস্তার পাশে বিভিন্ন ঠাণ্ডা পানীয় পান করে একটু প্রশান্তির আশ্রয় খুঁজতে দেখা যায় পথচারীদের।

গরমের প্রভাব পড়েছে খেটে খাওয়া মানুষের ওপরও। বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হচ্ছেন না কেউই। তবে, যারা বের হচ্ছেন তাদেরকে নাক মুখ কাপড় দিয়ে ঢেকে রাস্তায় চলাচল করতে দেখা গেছে।

এদিকে, রাজধানী নয়াদিল্লিসহ ভারতের উত্তরাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোতে তীব্র এই দাবদাহ আগামী বুধবার পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ।

0 30

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আজকের সংবাদ শিরোনাম :