তিন বছর আগেই পরিত্যক্ত করা হয় ভবনটি


নোয়াখালী প্রতিনিধি : নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের ছাদের পলেস্তারা খসে চিকিৎসাধীন ২ শিশুসহ ৮ জন আহত হয়েছেন। এ ঘটনার পর হাসপাতালের ৪টি ওয়ার্ডের রোগীদের সরিয়ে নেয়া হয়েছে। গণপূর্ত বিভাগ ভবনটি ৩ বছর আগেই পরিত্যক্ত ঘোষণার দাবি করলেও, তা অস্বীকার করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক জানান, বুধবার (১২ জুন) ভোর সাড়ে ৬ টার দিকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের দ্বিতীয় তলার শিশু ওয়ার্ডের ছাদের পলেস্তারা খসে পড়ার পাশাপাশি একটি সিলিং ফ্যান খুলে নিচে পড়ে। এতে চিকিৎসাধীন ২ শিশু ও রোগীর স্বজনসহ ৮ জন আহত হন। তাৎক্ষণিকভাবে তাদের উদ্ধার করে জরুরি বিভাগে স্থানান্তর করা হয়। এ ঘটনায় আতঙ্কিত রোগী ও স্বজনরা।

গণপূর্ত বিভাগের দাবি, ৩ বছর আগে ভবনটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করেন তারা। তবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বিষয়টি অস্বীকার করে বলছেন- পরিত্যক্ত নয় ভবনটি ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছিল।

গণপূর্ত বিভাগের একজন বলেন, যেহেতু ভবনটি ঝুঁকিপূর্ণ, অনেক আগেই এর কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়া উচিত ছিল। চিঠিও দেয়া হয়েছিল।

ড. খলিলুল্লাহ বলেন, আমার কাছে চিঠি আছে, কিন্তু পরিত্যক্ত করা হয়নি।

দুর্ঘটনার পর তিনতলা ভবনের দ্বিতীয় তলার ৪টি ওয়ার্ড থেকে রোগীদের সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

0 30

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
আজকের সংবাদ শিরোনাম :
%d bloggers like this: