চীন বিরোধী বিক্ষোভকারীদের যুক্তরাজ্যের সমর্থন


জবাবদিহি ডেস্ক : চীনবিরোধী বিক্ষোভের অংশ হিসেবে হংকংয়ের পার্লামেন্টে ব্যাপক ভাঙচুর চালিয়েছে বিক্ষোভকারীরা। পরে পরিস্থিতি নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নেয় পুলিশ। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন হংকং এর প্রধান নির্বাহী ক্যারি লাম। এদিকে, হংকং এ আন্দোলনকারীদের প্রতি সমর্থন জানিয়েছে যুক্তরাজ্য। তবে, চীনের অভ্যন্তরীণ ইস্যুতে নাক না গলাতে ব্রিটেনের প্রতি আহ্বান বেইজিংয়ের।

সোমবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় হংকং এর পার্লামেন্ট ভবনের প্রাচীর ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করেন কয়েকশো বিক্ষোভকারী। পার্লামেন্টে ভাঙচুরের পাশাপাশি দেয়ালে নানা বার্তা লিখে দেন তারা। এ সময় ভেতরে অবস্থানকারীরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন।

তাদের একজন বলেন, ‘আমি সত্যিই অনেক বেশি উদ্বিগ্ন। সরকার যদি তাদের দাবি না মেনে নেয় তাহলে ভয়াবহ কিছু ঘটে যেতে পারে। যত দ্রুত সম্ভব এর রাজনৈতিক সমাধান হওয়া প্রয়োজন।’

পরে, পার্লামেন্ট ভবনের ভেতর থেকে বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে দেয় পুলিশ। এ সময় উভয় পক্ষের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। প্রায় ৪ ঘণ্টা পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে বলে জানায় পুলিশ।

বিক্ষোভকারীদের সহিংস আচরণের নিন্দা জানিয়েছে হংকং কর্তৃপক্ষ।

কর্তৃপক্ষ জানান পার্লামেন্টে এমন সহিংসতা কেউ কখনো কল্পনাও করতে পারিনি। আমরা মনে করি এখন অধিকাংশ হংকং বাসী আমাদের সাথে থাকবেন। আশা করছি খুব দ্রুত সমাজে আবার স্থিতিশীলতা ফিরে আসবে।

এদিকে, এক টুইট বার্তায় হংকং এ আন্দোলনরতদের গণতন্ত্রকামী আখ্যা দিয়ে সমর্থন জানিয়েছেন ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী জেরেমি হান্ট। বলেন, হংকং এর মানুষের শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের অধিকার রয়েছে।

এরমধ্যেই হংকং ইস্যুতে যুক্তরাজ্যের ভূমিকার তীব্র সমালোচনা করেছে চীন। এক সংবাদ সম্মেলনে দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বলেন, হংকং ইস্যুতে বিদেশি হস্তক্ষেপ মেনে নেবে না বেইজিং।

0 30

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আজকের সংবাদ শিরোনাম :
%d bloggers like this: