খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বৃষ্টির মধ্যে বিক্ষোভ মিছিল


বাবদিহি রিপোর্ট : বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে ঈদুল ফিতরের দিনে বৃষ্টির মধ্যে বিক্ষোভ মিছিল করেছেন দলটির নেতাকর্মীরা। আজ বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে মিছিলটি বের হয়। এটি নাইটিঙ্গেল মোড় ঘুরে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়।

মিছিলে নেতৃত্ব দেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী। মিছিল শেষে বক্তৃতায় রিজভী আহমেদ বলেন, দেশ ও জনগণ আজ বাকশালী কারাগারে বন্দি। একদলীয় শাসনকে চিরস্থায়িত্ব দেওয়ার জন্যই বিএনপি চেয়ারপারসন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে বন্দি করা হয়েছে। কর্তৃত্ববাদী শাসন দীর্ঘস্থায়ী করতেই গণতন্ত্রকে কবর দেওয়া হয়েছে। গত ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচন ২৯ ডিসেম্বর রাতেই সমাপ্ত করা হয়েছে। সর্বকালের সেরা জাল-জালিয়াতির এই নির্বাচন নিশ্চিত করার জন্যই আপসহীন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে আটকে রাখা হয়েছে। বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব বলেন, আজ ঈদের দিন, উৎসবের দিন অথচ এই ঈদের আগে জনগণের প্রত্যাশা ছিল অন্যায়ভাবে কারাবন্দি করে রাখা দেশনেত্রীকে মুক্তি দেওয়া হবে। কিন্তু সরকার দেশনেত্রীর মুক্তি নিয়ে এক সর্বনাশা খেলায় মেতেছে। দেশকে চিরদিনের মতো আওয়ামী খাঁচায় বন্দি করে রাখার জন্য গণতন্ত্রকে ধ্বংসস্তূপে পরিণত করার চূড়ান্ত লক্ষ্য হিসেবে বেগম জিয়াকে বন্দিশালায় রাখা হয়েছে।

রিজভী আহমেদ জোরালো কণ্ঠে বলেন, এই বন্দিশালা ভেঙে দেশনেত্রীকে মুক্ত করে আনতে হবে। দেশনেত্রীর জীবন নিয়ে সরকারের মাস্টারপ্লানের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে সবাইকে। দেশের স্বাধীনতার সর্বভৌমত্ব ও গণতন্ত্র রক্ষার জন্যই দেশনেত্রীর মুক্তি নিশ্চিত করতে হবে। কারণ এই সরকার যত দিন ক্ষমতায় থাকবে তত দিন দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব ক্রমান্বয়ে দুর্বল থাকবে। দেশকে রক্ষা করতে হলে গণতন্ত্রের প্রতীক দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্যই ঝড়-বৃষ্টি-প্রখর খরতাপ উপেক্ষা করে রাজপথে সবার উপস্থিতি অপরিহার্য। সাধারণ মানুষের জীবন ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য এই সরকারের পতন ঘটিয়ে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠায় সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

মিছিলে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আরিফুর রহমান নাদিম, তাঁতী দলের কেন্দ্রীয় কমিটির আহ্বায়ক আবুল কালাম আজাদ, সদস্য সচিব হাজি মুজিবুর রহমান, মৎস্যজীবী দল কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সচিব আবদুর রহিম, জ্যেষ্ঠ যুগ্ম আহ্বায়ক নাদিম চৌধুরী, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবদলের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মাওলা শাহিন, স্বেচ্ছাসেবক দলের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি রফিক হাওলাদার, ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক দপ্তর সম্পাদক আব্দুস সাত্তার পাটোয়ারী, মহানগর পূর্বের সাংগঠনিক সম্পাদক রবিউল ইসলাম নয়নসহ অঙ্গসংগঠের বিপুল নেতাকর্মী অংশ নেন।

নেতাকর্মীরা বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে মিছিলে মুহুর্মুহু স্লোগান দেন।

বিএনপির সহদপ্তর সম্পাদক মুহম্মদ মুনির হোসেনের পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

0 30

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
আজকের সংবাদ শিরোনাম :
%d bloggers like this: