অবশেষে দলীয় পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন মে


জবাবদিহি ডেস্ক : ব্রেক্সিট ইস্যুতে সমঝোতায় পৌঁছাতে ব্যর্থতার দায় মাথায় নিয়ে অবশেষে দলীয় পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে।

শুক্রবার (৭ জুন) নিজ দল কনজারভেটিভ পার্টির নেতৃত্ব থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে সরে দাঁড়ান তিনি। তবে নিজেদের উত্তরসূরী খুঁজে না পাওয়া পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী পদে বহাল থাকছেন তিনি। খবর বিবিসির।

আগামী জুলাইয়ের শেষের দিকে নতুন নেতা নির্বাচন করা হতে পারে। সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসনসহ সম্ভাব্য প্রধানমন্ত্রীর তালিকায় ১১ কনজারভেটিভ এমপিকে রাখা হয়েছে।

আগামী সোমবারের মধ্যে কয়েকজন ঝরে পড়তে পারেন। সোমবার (১০ জুন) মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন।

থেরেসা মে ২০১৬ সালে অনুষ্ঠিত এক গণভোটে ব্রেক্সিটের পক্ষে রায় আসার পর ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। দায়িত্ব গ্রহণ করার পর তিনি ব্রেক্সিট পরিকল্পনা নিয়ে তিন বছর কাজ করেছেন। কিন্তু কোনো সমাধানে পৌঁছতে পারেননি মে। যার ফলে পদত্যাগের ঘোষণা দিলেন।

পরবর্তী ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী কে হচ্ছেন তা নিয়ে বিরোধী লেবার পার্টির মধ্যেও শঙ্কা রয়েছে। ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে বোঝাপড়ার অভাবে আগামী ৩১ অক্টোবর ব্রিটেন চুক্তি ছাড়াই ইইউ ত্যাগ করতে পারে, এমন আশঙ্কা বেড়ে চলেছে।

উল্লেখ্য, গত মে মাসে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন। ওই সময় তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, অল্প কয়েকদিনের মধ্যেই আমি আমার কাজ ছেড়ে দেব।

ব্রেক্সিট ইস্যুতে নিজের নেওয়া পদক্ষেপের বিষয়ে তিনি বলেন, কোনও খারাপ উদ্দেশ্য নিয়ে আমি কিছু করিনি।

0 30

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
আজকের সংবাদ শিরোনাম :
%d bloggers like this: